যেভাবে শুরু করবেন ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েব সাইট তৈরি [ এ টু জেড টিউটোরিয়াল ]

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম

ওয়ার্ডপ্রেস বাংলা ওয়েব সাইটের শুভ উদ্ভোদন উপলক্ষে আমার আমার এই প্রথম পোস্ট কে আপনাদের মাঝে তুলে ধরলাম। জানিনা কেমন লিখবো এই পোস্ট এ তবে আশা করি সকল নতুন ব্যবহারকারীদের বেশ কাজে দেবে এই পোস্ট।

ওয়ার্ডপ্রেস কি?

ওয়ার্ডপ্রেস একটি সিএমএস (কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম) এই সিএমএস ব্যবহার করে সুদর ও আকর্ষণীয় ওয়েব সাইট ও ব্লগ তৈরি করা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেস কেন?

ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে একটি মুক্ত সফটওয়্যার যা পিএইচপি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করার জন্য কোন লাইসেন্স ক্রয় করতে হয়না কারন এটি একদম বিনামূল্য। ওয়ার্ডপ্রেস এর থিম ডাইরেক্টরি তে প্রচুর থিম আছে যার মধ্যে প্রায় সবগুলোই বিনামূল্য। এছাড়াও রয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস এর প্লাগিন ডাইরেক্টরি এবং এখানেও রয়েছে অসংখ্য ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন যার মধ্যে প্রায় সবগুলোই বিনামূল্য। তাছাড়া বিভিন্ন লেখক অনেক ধরনের প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম ও প্লাগিন তৈরি করেছেন যা আপনি সুলভ মূল্যে ক্রয় করে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইট এর জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করতে কি কি প্রয়োজন?

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করতে একটি পিএইচপি ও মাইএসকিউএল সমর্থন করে এই রকম একটি সার্ভার (হোস্ট)। ডোমেইন ও নিজের কিছু মেধা 😛 ।

সার্ভার (হোস্ট) কি?

দেখতেই পাচ্ছেন ঝর হোক বা বৃষ্টিই হোক ওয়ার্ডপ্রেস বাংলা ওয়েব সাইটটি সব সময় সচল। কখন যে এই ওয়েব সাইটটি বন্ধ ও কখন খোলা হয় তা বোঝা সম্ভব হচ্ছে না। যদি মনে করেন এই ওয়েব সাইটটি জামিল ভাই তৈরি করেছে তাহলেই এই ওয়েব সাইটের সকল ফাইল জামিল ভায়ের কম্পিউটারে থাকার কথা। কিন্তু জামিল ভাই তো দিনে ১০-১৫ বার কম্পিউটার বন্ধ করে কই ওয়ার্ডপ্রেস বাংলা বন্ধ তো হচ্ছে না। সার্ভারও হচ্ছে কম্পিউটার কিন্তু এই কম্পিউটার জামিল ভায়ের নয়! হয়তো অন্য কারো। কিন্তু জামিল ভাই সেই কম্পিউটারের কিছু অংস ক্রয় করে নিয়েছে। কারন এই কম্পিউটার নিরাপদ স্থানে আছে যেখানে বিদ্যুৎ অথবা ঝর-বৃষ্টির তে কম্পিউটারের সমস্যা কম হয় এবং সারাদিন-রাত চালু হয়ে থাকে। হোস্টিং এর জন্য সবচেয়ে ভালো ও জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম হচ্ছে লিনাক্স এবং হোস্টিং কন্ট্রোল প্যানেল হচ্ছে সিপ্যানেল (cPanel)।

ডোমেইন কি?

সহজ ব্যপার! ডোমেইন হচ্ছে একটি নাম যে নামে আপনার ওয়েব সাইটকে সকলে চিনতে পারবে। প্রতিটা জিনিস এর যেমন নাম আছে তেমনি আপনার ওয়েব সাইটের ও একটি নাম রাখা প্রয়োজন। আর সেই নামকেই ডোমেইন বলা হয়। তাহলে আপনারা বুঝে গেছেন সার্ভার (হোস্ট) ও ডোমেইন কি? নিশ্চয় বুঝে গেছেন। তাহলে এবার দেখা যাক কিভাবে আপনার সার্ভার (হোস্ট) ও ডোমেইন কে একত্রিত করে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে একটি ওয়েব সাইট তৈরি করা যায়। প্রথমে আপনাকে একটি ডোমেইন নিতে হবে। ডোমেইন নেয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু অর্থ প্রদান করতে হবে কারন আপনি চাইলেই এই ডোমেইন নিজ থেকে তৈরি করতে পারবেন না। তবে কিছু কোম্পানি ফ্রি ডোমেইন প্রদান করে থাকে আপনি তাদের ওয়েব সাইট থেকে ডোমেইন সংগ্রহ করতে পারেন।

ফ্রি ডোমেইন এর কিছু ওয়েব সাইটঃ

এবার আপনাকে একটি সার্ভার (হোস্ট) নিতে হবে। ডোমেইন এর মত এটার জন্যও কিছু অর্থ প্রদান করতে হয়। তবে এর জন্যও বেশ কিছু ওয়েব সাইট যেখানে আপনার ওয়েব সাইট এর সকল তথ্য রাখার জন্য কিছু অংস বিনামূল্যে প্রদান করেন।

ফ্রি ওয়েব হোস্টিং এর কিছু ওয়েব সাইটঃ

তবে মনে রাখবেন দুধের সাধ কোনদিন ঘোল দিয়ে মিটানো যায় না। তাই ফ্রি হোস্টিং ও ডোমেইন এর চেয়ে কিছু টাকা দিয়ে হলেও কিনে নেয়াই ভালো। কারন কেনা হোস্টিং এ আপনি সাপোর্ট পাবেন এর ফ্রি হোস্টিং এ সাইট বন্ধ হয়ে গেলেও আপনার কিছু করার থাকবে না। অ্যাড: আমার কাছ থেকেও উন্নত মানের হোস্টিং নিতে পারেন :D। সাথে ডোমেইন ও নিতে পারেন ।

ডোমেইন যেভাবে নিবেনঃ

উপরের লিস্ট থেকে একটি ফ্রি ডোমেইন কোম্পানি পছন্দ করুণ। অথবা টপ লেভেল ডোমেইন কিনে নিন। আমি এখানে টিউটোরিয়াল এ দেখানোর জন্য ডটটিকে ডোমেইন কেই পছন্দ করলাম। ডটটিকে ওয়েব সাইট ওপেন করুণ এবং আপনি যে নামের ডোমেইন নিতে চান তা ফাকা স্থানে লিকে GO বাটনে ক্লিক করুণ।

এবার নিচের ছবির মত আসবে সেখানে:

1. Use DNS এ ক্লিক করুণ তাহলে দুইটা অপশন পাবেন।

2. Your Own DNS এ ক্লিক করুণ আপনার ওয়েব হোস্টিং এর DNS অথবা আইপি দেয়ার জন্য।

3. আপনার হোস্টিং এর DNS দিন।

তারপর সাইন আপ করুণ। সাইন আপ করার সময় গুগল, ফেসবুক, ইয়াহু, লাইভ সহ আরও সামাজিক যোগাযোগ ব্যবস্থার মাধ্যেম ব্যবহার করতে পারেন।

ব্যাস হয়ে গেলো ডোমেইন নেয়ার কাজ। পরবর্তিতে ডোমেইন এর DNS পরিবর্তন করার জন্য মাই.ডট.টিকে তে গিয়ে আপনি সেই সামাজিক যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যবহার করুণ যা সাইনআপ করার সময় ব্যবহার করেছিলেন।

সিপ্যানেল হোস্টিং দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটলঃ

আপনি যদি সিপ্যানেল হোস্টিং সেবা গ্রহণ করে থাকেন তাহলে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার নিয়ম এই পোস্ট দেখতে পাবেন। এবং যদি ফ্রি হস্টিং সেবা নিয়ে থাকেন তাহলে অন্যদিন দেখিয়ে দেবো 😉 ।

প্রথমে আপনার সিপানেল এ লগইন করুণ এবং ফাইল ম্যানেজার ওপেন করুণ।

এবার আপনার ফাইল ম্যানেজার থেকে Public_html অথবা WWW ফোল্ডার ওপেন করুণ। এবং আপলোড ফাইল আপলোড করার জন্য Upload আইকন এ ক্লিক করুণ।

এখানে আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস আপলোড করতে হবে। তাই এই লিংক থেকে ওয়ার্ডপ্রেস এর সর্বশেষ সংস্করণটি ডাউনলোড করুণ। ডাউনলোড সম্পন্ন হয়ে গেলে আপনাকে এবার আপনার হোস্ট এ আপলোড করুণ।

এখন আপলোড হওয়া সমাপ্ত হলে আপনার ফাইল ম্যানেজার একবার রিফ্রেশ (1.Reload) করুণ তাহলেই আপনার আপলোড করা ওয়ার্ডপ্রেস দেখতে পাবেন।

এবার ওয়ার্ডপ্রেস কে আনজিপ করার জন্য আপলোড করা সেই ফাইলের উপরে রাইট ক্লিক করুণ; তাহলে বেশ কিছু অপশন বেরিয়ে আসবে সেখান থেকে এক্সট্রাক্ট (3.Extract) মেনুতে ক্লিক করুণ।

এরপর সেখানে আপনারা আনজিপ করা ওয়ার্ডপ্রেস এর সকল ফাইলগুলো দেখতে পাবেন WordPress নামক একটি ফোল্ডারে। এবার সেই ফোল্ডার ওপেন করুণ এবং সেখানে সকল ফাইল ও ফোল্ডার গুলোকে একসাথে সিলেক্ট করুণ তারপর রাইট ক্লিক করে Move মেনুতে ক্লিক করুণ। এর পর public_html লিখে মুভ করুণ।

এখন আপনার ওয়েব সাইটে ভিজিট করে দেখুন ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল হওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে গেছে।

যায় হোক অবশেষে এতদূর পর্যন্ত তো এসেছি! এবার পরের কাজ গুলোও শেষ করতে পারবো নিশ্চয় আগেই বলেছি ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার জন্য মাইএসকিউএল এর প্রয়োজন আছে আর এখন আমরা সেই মাইএসকিউএল এর কাজ করবো। তাহলে চলুন দেখে নেই কিভাবে সিপ্যানেল দিয়ে মাইএসকিউএল ডাটাবেজ তৈরি করা যায়। আপনার সিপ্যানেল থেকে MySQL Database Wizard এ ক্লিক করুণ।

এবার নিচের ছবির মত আসলে সেখানে আপনার পছন্দ মত একটি ডাটাবেজ এর নাম দিন এবং নোট করে রাখুন। Next Step এর ক্লিক করুণ।

এখন ডাটাবেজ ব্যবহারকারী ও পাসোয়ার্ড তৈরি করতে হবে। তাই Username এর আপনার ডাটাবেজ ইউজার নাম দিন। এবং পাসোয়ার্ড খুব শক্ত দিতে হবে। শুধু ১২৩৪৫৬ অথবা ABCDE দিলেই হবেনা। আপনার পাসোয়ার্ড TesT##%%559 এই ধরনের হতে হবে।

এখানে যে সকল তথ্য দিচ্ছেন তা অবশ্যই নোট করে রাখুন। Create User এ ক্লিক করুণ।

এখন নিচের ছবির মত সকল চেকবক্স এ টিক দিয়ে Next Step এ ক্লিক করুণ তাহলেই হয়ে গেলো একটি মাইএসকিউএল ডাটাবেজ সহ একটি ব্যবহারকারীর সাথে যুক্ত হয়ে গেলো।

এখন সিপ্যানেল বন্ধ করে দিন এবং আপনার ওয়েব সাইট এ ভিজিট করুণ দেখুন সে আগের অবস্থাতেই আছে কোন পরিবর্তন হয়নি। তাই একে একটি পুরনাঙ্গ সাইটে রূপান্তর করার জন্য Create a Configuration File এ ক্লিক করুণ আবার Let’s go! এ ক্লিক করুণ।

এবার দেখুন একটা ফরম এসেছে এখন সেখানে মাইএসকিউএল এর তথ্য গুলো দিতে হবে যা আপনি সিপ্যানেল দিয়ে তৈরি করেছিলেন।

1. এখানে আপনার সিপ্যানলে এর তৈরি মাইএসকিউএল ডাটাবেজ নাম, ব্যবহারকারী ও পাসোয়ার্ড দিন।

2. আপনি যে হোস্ট এ ডাটাবেজ হোস্ট করেছেন সেই হোস্ট এর ঠিকানা দিন (এটা ফ্রি ওয়েব হস্টিং ও নিজস্ব মানেজ সার্ভার এর জন্য প্রযোজ্য)। তবে সিপ্যানেল হোস্ট এর জন্য localhost ই রাখতে হবে।

3. wp_ হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস এর ডিফল্ট প্রেফিক্স আপনার সাইটের নিরাপত্তা বাড়ার জন্য এটা পরিবর্তন করে দিতে পারেন। যেমনঃ blog_, site_, my_ ইত্যাদি।

সকল তথ্য দেয়া হয়ে গেলে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুণ। সকল তথ্য সঠিক ভাবে দেয়া হলে নিচের ছবির মত আসবে। যদি নিচের ছবির মত না আসে তাহলে আবার সঠিক তথ্য দিয়ে চেষ্টা করুণ।

এখন Run the install বাটনে ক্লিক করুণ। দেখুন নিচের ছবির মত আরও একটি ফরম এসে উপস্থিত। এখন সেই ফরম টি পূরণ করলেই একটি পুরনাঙ্গ ওয়ার্ডপ্রেস সাইট প্রস্তুত ব্যবহার করার জন্য।

1. আপনার সাইটের নাম দিন।

2. আপনার সাইটের প্রশাসক (এডমিন) এর লগইন নাম দিন।

3. প্রশাসক এর পাসোয়ার্ড দিন। এবং পাসোয়ার্ড যাতে খুব শক্ত হয় সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

4. প্রশাসক এর ইমেইল দিন, যে ইমেইল ঠিকানাটি সাইটের মূল নিয়ন্ত্রক হিসেবে রাখতে চান।

5. এখানে যদি টিক দিয়ে রাখেন তাহলে আপনার সাইট গুগল, ইয়াহু, বিং সহ আরও বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে আপনার সাইটকে খুঁজে পাওয়া যাবে। টিক উঠিয়ে দিলে কোন সার্চ ইঞ্জিনে আপনার সাইটকে খুঁজে পাওয়া সম্ভব হবে না।

নোটঃ এখানে দেয়া সকল তথ্য ড্যাশবোর্ড থেকে পরিবর্তন করতে পারবেন।

ব্যাস হয়েই গেলো আপনার একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইট। এখন আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড এ লগিন করে ইচ্ছে মত পরিবর্তন, থিমস ইন্সটল, প্লাগিন ইন্সটল, নতুন পোস্ট, নতুন পাতা সহ যেকোনো কিছু যুক্ত করতে পারবেন।

ড্যাশবোর্ড লগইন ইউআরএলঃ http://আপনার-ডোমেইন.কম/dashboard

কিছু প্রয়োজনীয় ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ও লিংকঃ

বাংলাতে ওয়ার্ডপ্রেস কে রূপান্তরঃ মামুন সৃজন ভায়ের এই পোস্টটি দেখতে পারেন।

বাংলা কিবোর্ডঃ মন্তব্য ও পোস্ট লেখার সময় বাংলা কিবোর্ড যুক্ত করা যায় এই প্লাগিন দিয়ে।

প্রিয় পোস্ট প্লাগিনঃ এই প্লাগিন দিয়ে সকল পোস্ট কে ব্যবহারকারীরা প্রিয় পোস্ট আকারে রাখতে পারেন।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্যাকআপঃ এই পোস্ট পড়লে বুঝতে পারবেন কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস কে ব্যাকআপ রাখতে হয়।

ভিজিটর এর কঝ খবরঃ এই পোস্ট পড়লে বুঝতে পারবেন কিভাবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগের ভিজিটর এর খোঁজ খবর।

আরো জানতে গুগল মামার সাহায্য নিতে পারেন 😉  ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল এ কারো কনো সমস্যা হলে জানাবেন।

এই লেখাটিঃ বিডিরঙ.কম, টেকটিউনস, টিউটোরিয়ালবিডি ডব্লিউপিবাংলা.কম এ প্রকাশ করা হয়েছে।

Level 2

আমি আমিনুল ইসলাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 72 টি টিউন ও 969 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

সুপারভ !

অনেক সুন্দর হয়েছে টিউনটি। ধন্যবাদ।

Level 0

##….সুন্দর হয়েছে….## i want to meet you,, 01712843837 just make a call or your number plz

এক কথায় অসাধারণ

অনেক ভালো লেগেছে, ধন্যবাদ আপনাকে। আশা করি চালিয়ে যাবেন।

ফাটাফাটি

কাজের জিনিশ। ধন্যবাদ।

ভাল ।

Level 0

অসাধারণ টিউন 🙂 সুপার লাইক

নিঃসন্দেহে মান সম্পন্ন এবং কাজের টিউন,ধন্যবাদ কষ্ট করে সুন্দর টিউনটি করার জন্য।

একদম ডিরেক্ট প্রিয়তে !

এক কথায় অসাধারন !!! একদম সরাসরি প্রিয়তে নিলাম ।

Very Good

Level 0

Amio Direct Prioyote Dia Dilam………………..Very Nice Tune……Go Ahead Aminul Vhaia…..

Priyote Rakhlooooom…

Level 0

vai ame sob e kor se ja ja apne bolsen but amer domain er ses a wordpress name ase
jemon:yourdomain.com/wordpress .Akon ai wordpress name kemne remove kor bo.

    @slrana: আমি উপরে ভালো করেই দেখিয়েছি যে কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস এর সকল ফাইলগুলো কে রুট ডাইরেক্টরি তে নিয়ে আসবেন। একটু ভালো করে খেয়াল করুণ।

    এখন করনীয়ঃ আপনি ফাইল মানেজার এ লগইন করুণ এবং /wordpress ডাইরেক্টরি ওপেন করে সকল ফাইলগুলোকে /public_html এ সরিয়ে নিয়ে আসুন।

    ধন্যবাদ

আমি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে একটি ওয়েব সাইট তেরি করেছি, WP favorite post প্লাগইনটা ইনস্টল করেছি। কিন্তু এটা দিয়ে কিভাবে “কোন্ পোস্ট কত জন প্রিয় হিসেবে” যুক্ত করেছেন তা যুক্ত করব তা বুঝতে পারছি না। যেমন আপনার এই পোস্টটা ৩৫ জন “প্রিয় টিউন” করেছেন।

Level 0

অসাধারন টিউন সরাসরি প্রিয়তে…।

অনেক সুন্দর ………………………।

অসাধারন টিউন সরাসরি প্রিয়তে…।

Level 0

it will be very helpful for me.Many many thanks.

ভাই, ওয়ার্ডপ্রেস দিযে ব্লগ ছাড়া অন্য কিছু যেমন আপলোড ডাওনলোড করার মতো কোন সাইট তৈরী করা যায় না? অনেকটা ‘দরিদ্রডটকম’ এর মতো!
এই সম্পর্কে জানালে উপকৃত হতাম।

ভাই আমিতো শুরুতেই বুঝলাম না। ডিএনএস পাব কোথায়? আমার তো কোনো হোস্টিং নাই।

দয়া করে বলবেন কিভাবে এইটা পাব?

Level 0

Take my salam.
Hope that you’re quite well by grace of Allah. This post is nice and very very important to learning wordpress. Thank you a lot of….

ভাই আমি কিভাবে dse ও cse এর ifream তৈরী করব? একটু সাহায্য করবেন।

অনেক ভাল পোস্ট http://itblogs-bd.com/

পোষ্টটা অনেক ভাল হয়েছে এগিয়ে যান।
টপ / সেরা ১০ টি WordPress Theme দেখেনিন। Thanks
http://www.techtunese.com/wordpress/top-10-wordpress-theme-bestsellers/