উইন্ডোজ এবং ম্যাক এর ১৭ টি সেরা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, এখন থেকে ভিডিও এডিটিং অতি সহজে করবেন

টিউন বিভাগ ভিডিও এডিটিং
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

সেরা ভিডিও এডিটিং সফ্টওয়্যার প্রায় প্রত্যেককেই চলচ্চিত্র নির্মাতা বানাতে পারে। আজকাল আপনি দেখতে পাবেন অনেকে ইউটিউবে ছোট্ট ছোট্ট চলচ্চিত্র বানিয়ে থাকে। আধুনিক ভিডিও এডিটিং সফ্টওয়্যার আগের চেয়ে আরও ভাল, সুতরাং চলচ্চিত্র বানানোর সময় এখনই। ভিডিও এডিটিং  শুরু করতে আপনার কোনও কোর্স নেওয়া  বা কোনও বিশেষ বই পড়ার দরকার নেই। আপনাকে যা করতে হবে তা হল আপনার ল্যাপটপ বা স্মার্টফোনে সেরা ভিডিও এডিটিং সফ্টওয়্যারটি ইনস্টল করা। তারপরে আপনার ছবি বানাবার জন্য আপনার কেবলমাত্র সময়, কল্পনা এবং সৃজনশীলতার প্রয়োজন।

নিচে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারের তালিকা দেওয়া হয়েছে

১. এডোবি প্রিমিয়ার প্রো সিসি

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ এবং ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য: মাল্টি-ক্যাম এডিটিং, 3D এডিটিং, উপযুক্ত : পেশাদার এবং উৎসাহী

  • দুর্দান্ত স্বয়ংক্রিয় ফাংশন
  • ইন্ডাস্ট্রি স্ট্যান্ডার্ড ভিডিও এডিটিং টুল

আপনি যদি উইন্ডোজ ব্যবহারকারী হন তবে অ্যাডোব প্রিমিয়ার প্রো সিসি  এখনের মধ্যে সবচেয়ে সেরা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার। এটি দেখতে সহজ হওয়ার কারণে উইন্ডোজ 10 ব্যবহারকারীদের মধ্যে  জনপ্রিয়। এটি এমন কিছু ভিডিও ট্র্যাক পরিচালনা করতে পারে যা আপনি ভাবতেও পারেন না।

২. ফাইনাল কাট প্রো এক্স

প্ল্যাটফর্ম : ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : মাল্টি ক্যাম এডিটিং, ইন্টেলিজেন্ট কালার ব্যালেন্সিং, উপযুক্ত : পেশাদার এবং উৎসাহী

  • বহুমুখী এবং শক্তিশালী এডিটিং
  • উজ্জ্বল ইন্টারফেস

ফাইনাল কাট প্রো এক্স ম্যাকের জন্য সেরা ভিডিও এডিটিং সফ্টওয়্যার। এটি ব্যবহার করা সহজ, সাথে আছে অনেক বৈশিষ্ট্য  এবং এটিতে আপনি চাইলে অডিও এডিট করতে পারেন।

৩. এডোবি প্রিমিয়ার এলিমেন্টস ২০১৯

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ এবং ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : ভিডিও স্ট্যাবিলাইসেশন, ফেস ডিটেকশন, অটোমেটিক মোশন ট্র্যাকিং, উপযুক্ত : পেশাদার এবং উৎসাহী

  • ব্যবহার করা সহজ
  • প্রচুর বৈশিষ্ট্য
  • দ্রুততম ভিডিও এডিটর নয়

প্রিমিয়ার বিভাগে এডোবির নুতুন প্রবেশ। অভিজ্ঞ এডিটরদেড় জন্য এডোবি দুর্দান্ত পছন্দ। এটি এডোবি প্রিমিয়ার প্রো র মতো খুব বেশি জটিল নয়।

৪. এডোবি প্রিমিয়ার রাশ

প্ল্যাটফর্ম: অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, মূল বৈশিষ্ট্য : 4K সমর্থন করে, উপযুক্ত : মোবাইল উৎসাহী।

  • অডিও এডিটিংয়ের জন্য দুর্দান্ত

এডোবি প্রিমিয়ার রাশকে বছরের পর বছর ধরে এডোবি দ্বারা নিখুঁত ভাবে বানানো হয়েছে  এবং তারপরে  আপনার কাছে আনা হয়েছে। এটি  একটি সোজা সাপটা  ইন্টারফেস যা প্রিমিয়ার প্রো ব্যবহারকারীদের কাছে  পরিচিত।

৫. কাইনমাস্টার

প্ল্যাটফর্ম: অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, মূল বৈশিষ্ট্য : ইনস্ট্যান্ট প্রিভিউ, স্মার্ট এফেক্টস, উপযুক্ত : নুতুন এবং পেশাদার

  • বিস্ময়কর বৈশিষ্ট্য
  • সস্তা এডিটিং  অ্যাপ্লিকেশন

লোয়ার-এন্ড ডিভাইসগুলিতে আস্তে চলে

আপনি যদি মনে করেন যে আপনার স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটে ভিডিও এডিটিং  করার চেষ্টা অর্থহীন অনুশীলন, তবে কাইনমাস্টার আপনাকে আবার ভাবতে বাধ্য করবে। এটি একাধিক স্তর এডিটিং, ফন্ট যুক্ত করতে পারে, চারটি পর্যন্ত অডিও ট্র্যাকের পরীক্ষা করতে পারে এবং একটি ফ্রেম এবং উপ-ফ্রেম স্তরে অবিকল এডিটিং  করার ক্ষমতা রাখে।

৬. কোরেল ভিডিওস্টুডিও আলটিমেট  ২০১৯

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, মূল বৈশিষ্ট্য: রিয়েল-টাইম এফেক্টস, কালার কারেকশন, উপযুক্ত : নুতুন

  • বাছাই করা অতি সহজ

কোরেল ভিডিওস্টুডিও আলটিমেট নুতুনদের  জন্য ভিডিও এডিটিং  করার দুর্দান্ত সুবিধা প্রদান  করে। এটি সমর্থন করে মাল্টি এডিটিং, 4k ভিডিও, 360 ডিগ্রী ভিডিও।

৭. ফিল্মোরা

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : 4K ভিডিও, উপযুক্ত : উৎসাহী

  • ব্যবহার করা সহজ

ওয়ান্ডারশেয়ার ফিল্মোড়া উৎসাহীদের  জন্য একটি শক্তিশালী ভিডিও এডিটিং সরঞ্জাম। এটির ইন্টারফেস শুধুমাত্র ইউটিউবার দেড় কথা মাথায় রেখে বানানো হয়েছে। আপনার ভিডিওগুলিকে প্রভাবিত করতে রয়্যালটি-মুক্ত সাউন্ড ইফেক্ট এবং সংগীতের একটি লাইব্রেরী  রয়েছে।

৮.  সাইবারলিঙ্ক পাওয়ারডাইরেক্টর ১৭ আল্ট্রা

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, মূল বৈশিষ্ট্য: মাল্টি-ক্যাম এডিটিং, 360 ডিগ্রি ভিডিও, মোশন ট্র্যাকিং

  • সত্যিই শক্তিশালী সরঞ্জাম
  • আশ্চর্যজনকভাবে সাশ্রয়ী
  • নুতুনদের জন্য কঠিন

সাইবারলিঙ্ক পাওয়ারডাইরেক্টর গুরুতর ভিডিও এডিটরদের  জন্য মারাত্মক একটি সফটওয়্যার। এটি একটি দুর্দান্ত ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার। উচ্চ মানের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ সফটওয়্যার।

৯. পিনাকল ষ্টুডিও ২২

প্ল্যাটফর্ম :উইন্ডোজ, মূল বৈশিষ্ট্য : মাল্টি  ক্যামেরা ক্যাপচার এবং এডিটিং, কালার কন্ট্রোল, স্টপ মোশন অ্যানিমেশন। উপযুক্ত : নুতুন

  • ব্যবহারের জন্য অতি-সহজ
  • বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য

আপনি যদি এর আগে কখনও ভিডিও এডিটিং  করেন নি  এবং প্রথমবারের মতো ভিডিও এডিটিং  করতে চান তবে পিনাকল স্টুডিও ২২ এর পক্ষে যাওয়াই ভাল।

১০. ব্লেন্ডার

প্ল্যাটফর্ম :উইন্ডোজ  এবং ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : মডেলিং টুল  এবং অ্যানিমেশন টুল। উপযুক্ত : পেশাদার

  • বিনামূল্যে ব্যবহার  করা যায়
  • বিনামূল্যে বিতরণ করা যায়

ইন্টারফেসটি কাস্টোমাইজেবল  এবং নমনীয় কালার সেটিংস। আপনি যদি আধা পেশাদার হন এবং আপনি যদি ভিডিও এডিটিংকে  উচ্চস্তরে নিয়ে যেতে চান তাহলে এই ভিডিও এডিটরটি আপনার জন্য।

১১. দা ভিন্সি রিসলভ

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, ম্যাক এবং লিনাক্স, মূল বৈশিষ্ট্য: কালার কারেকশন, অডিও টুলস, উপযুক্ত :পেশাদার

  • সহযোগীদের সাথে কাজ করার জন্য ভালো
  • অধিক উপযুক্ত ফুটেজ শেষ করার জন্য

এটি একটি বিনামূল্যে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার  যা বড় বাজেটের চলচ্চিত্র এবং টিভি প্রযোজনায় ব্যবহৃত হয়। আপনি যদি পেশাদার স্তরে ভিডিও এডিটিং করতে চান তাহলে এই সফটওয়ারটি আপনার জন্য।

১২. লাইটওয়ার্কস

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, ম্যাক এবং লিনাক্স, মূল বৈশিস্ট্য : মাল্টিক্যাম এডিটিং, উপযুক্ত : পেশাদার

  • সীমাবদ্ধ ফর্ম্যাট আউটপুট
  • টিউটোরিয়াল বানানোর জন্য উপযুক্ত

লাইটওয়ার্কস হলো আরেকটি পেশাদার ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার যেটি  হলিউডের প্রধান প্রযোজনায় ব্যবহৃত হয়েছে যেমন শাটার আইল্যান্ড এবং  পাল্প ফিকশনে।

১৩. ভিএসডিসি

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, মূল বৈশিষ্ট্য :চার্ট টুল, ভিডিও স্ট্যাবিলাইসার, উপযুক্ত :নুতুন

  • উপস্থাপনার জন্য উপযুক্ত

এটিতে ইনস্টাগ্রাম ফিল্টার রয়েছে। আপনি যদি উপস্থাপনা করতে চান  তাহলে  ভিসডিসি  আপনার জন্য নিখরচায় ভিডিও এডিটিং প্রদান করবে।

১৪. হিটফিল্ম এক্সপ্রেস

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : 2D  এবং 3D এফেক্টস, উপযুক্ত :নুতুন এবং উৎসাহী

  • শক্তিশালী কম্পিউটার প্রয়োজন

হিটফিল্ম এক্সপ্রেস  অ্যাডোবের একটি ভাল বিকল্প, এটি ব্যবহারকারীদের অনেক ভিজ্যুয়াল এফেক্ট সংমিশ্রনের বিকল্পগুলি সরবরাহ করে। এটি আপনাকে নিখরচায় আধা পেশাদার ভিডিও এডিটিং  সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করতে দেয়। তবে নতুনরা সফ্টওয়্যারটির ইন্টারফেসটি নেভিগেট করতে অসুবিধা পেতে পারে।

১৫. শটকাট

প্ল্যাটফর্ম: উইন্ডোজ, ম্যাক, লিনাক্স, মূল বৈশিষ্ট্য : 4K ভিডিও সমর্থন করে, উপযুক্ত: নুতুন

  • কাস্টোমাইজাবেল ইন্টারফেস

এর ইন্টারফেসটি জটিল।

১৬. এপ্পল আইমুভি

প্ল্যাটফর্ম:ম্যাক, মূল বৈশিষ্ট্য : 4K ভিডিও সমর্থন করে, উপযুক্ত : নুতুন

  • অডিওর জন্য দুর্দান্ত

১৭. টিকটক

প্ল্যাটফর্ম: অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, মূল বৈশিষ্ট্য :কাস্টোমাইজেড  ভিডিও, উপযুক্ত : সোশ্যাল মিডিয়া ইউজার

  • সোশ্যাল মিডিয়া প্রেমীদের জন্য উপযুক্ত

বাজারে অনেক ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার পাওয়া যায়। বিনামূল্যে পাওয়া যায় এবং কতগুলি কিনতে হয়। কিন্তু যখন আপনি নুতুন, আর আপনার প্রয়োজন ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারের! তখন আপনি কিভাবে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার বাছাই করবেন সেটাই হলো সবচেয়ে কঠিন বিষয়।

এখান থেকে কোনটি আপনার পছন্দের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার?

Level 3

আমি অভিজিত চৌধুরী। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 14 টি টিউন ও 30 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 9 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 6 টিউনারকে ফলো করি।

লিখতে চাই ,নিজেকে প্রকাশ করতে চাই।লেখার মাধ্যমে অন্যকে জানাতে চাই।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস