এডসেন্স সম্পর্কে কতিপয় ভ্রান্ত ধারণা, যেগুলো এড়িয়ে যাওয়া উচিত…

সাধারণত অধিকাংশ প্রফেশনাল ব্লগারেরই উদ্দেশ্য থাকে ব্লগে এড দেয়ার মাধ্যমে আয় করা। আমাদের দেশের ব্লগাররা লোকাল এডের চেয়ে এডসেন্সের এডের দিকে বেশি ঝুঁকে থাকেন, তাই এডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পাওয়াই অনেকের প্রথম উদ্দেশ্য। যদিও এডসেন্স একাউন্ট পাওয়াটা খুব একটা কঠিন কিছু না। তবে অনেকেই দেখা যায় এডসেন্স একাউন্ট থাকা সত্যেও এবং নিজের ব্লগ থাকা সত্ত্বেও খুব একটা আয় করতে পারছেন না এডসেন্স থেকে। এর পিছনে যেসকল বিষয় কাজ করছে সেগুলোর মধ্যে প্রথম সারীর কিছু কারণ হলো এডসেন্স সম্পর্কে অজ্ঞতা, ভ্রান্ত ধারণা, এডসেন্স বিষয়ক ব্লগগুলো বা এই বিষয়ক কোয়ালিটি লেখাগুলো না পড়া, এডের কোড সাইটে যুক্ত করে দিয়েই আয়ের আশায় বসে থাকা, ভিজিটরদের আচরণ প্রত্যক্ষ না করা ইত্যাদি ইত্যাদি। এই লেখাতে আমি এডসেন্স সম্পর্কে সাধারণ কিছু ভুল ধারণা তুলে ধরবো, যেগুলো এড়িয়ে যাওয়া উচিত।

রাতারাতি আপনি প্রচুর আয় করে ফেলবেন:

এটা একদম সাধারণ ধারণা, যে “আমি এডসেন্স একাউন্ট পাবো, আর রাতারাতি প্রচুর আয় করে ফেলবো”। সবাই খানিকটা এমন মনোভাবই পোষণ করে, বিশেষ করে নতুনরা। আমি নিজেও অনেকটা এমনই ভাবতাম যখন এডসেন্স একাউন্টের জন্যে আবেদন করেছিলাম, তখন চিন্তা-ভাবনা ছিল, এডসেন্স একাউন্ট এপ্রুভ হবে, হালি হালি ওয়েবসাইট বানাবো, ব্লগ বানাবো, সবার কাছ থেকে সেরা সব কপি করবো ব্যস টাকা পয়সা সব আমার, আমিই হবো মিলিয়-নিয়ার 😉   ।

কিন্তু এখন জানি, কতটা হাস্যকর চিন্তা-ভাবনা কাজ করতো আমার মাঝে। এডসেন্স একাউন্ট পাওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই ধারণা সম্পূর্ণ বদলে যেতে থাকে। ব্লগিং শুরু করার সাড়ে তিন মাসের মাথায় আমি প্রথম সফলতা পাই। তখন থেকেই বুঝতে শুরু করি এডসেন্স থেকে রাতারাতি আয় করা মোটেই সম্ভব না। সবসময়ই মনে রাখবেন এডসেন্স থেকে আপনি অনেক আয় করতে পারবেন কষ্ট করলে কিন্তু কখনোই তা রাতারাতি নয়, এডসেন্স গুরুদের লেখাগুলো পড়লেই বোঝা যায় তারা কতটা কষ্ট করে কতটা শ্রম দিয়ে, সময় দিয়ে তাদের বর্তমান অবস্থান নিশ্চিত করেছে।

রংচঙা ইমেজ এড থেকে বেশি আয় করা সম্ভব:

এই ধারণা কিছুক্ষেত্রে সত্য হলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভুল। সাধারণয় ভিজিটররা রঙচঙা এডসেন্স এডের তুলনায় সাধারণ টেক্সট এডেই ক্লিক করে থাকেন বেশি। অনেক ব্লগারকে শুধু ইমেজ এড ব্যবহার করতে দেখা যায়, কারণ তাদের ধারণা ইমেজ এড সহজেই ভিউয়ারের চোখে পড়ে। কিন্তু সত্য ঠিক তা উলটো। ইমেজ এডের তুলনায় টেক্সট এড এ বেশি ক্লিক পড়ে এমন ধারণার প্রবর্তক আমি নই, এডসেন্স নিয়ে যাদের এক্সপেরিমেন্ট করার অভ্যাস আছে তারা সকলেই এ বিষয়ে একই মত দিয়েছেন। আমি নিজেও একই ফলাফল করেছি। আবার অনেক ক্ষেত্রে ইমেজ এড ও পুরোপুরি কাজ নাও করতে পারে, সেজন্যে ব্লগে এড দেয়ার সময় টেক্সট ও ইমেজ দু’টোই দেয়া যেতে পারে।

নিজের এডে নিজেই ক্লিক করে বা অন্যকে দিয়ে করিয়ে আয় করা সম্ভব:

এই ধারণা মূলত তারাই পোষণ করেন যারা এডসেন্স সম্পর্কে সবেমাত্র জানতে শুরু করেছেন। এই ধারণা পোষণ করেন এমন অনেকেই দুর্ভাগ্যবশত এডসেন্স একাউন্ট পেয়েও তাদের ধারণার বাস্তব প্রতিফলন ঘটিয়ে বিপাকে পড়েন। কারণ আপনি কোনক্রমেই নিজের এডে নিজে ক্লিক করে বা অন্য পিসি থেকে অন্যকে দিয়ে বা নিজে ক্লিক করে আয় করতে পারবেন না। এডসেন্সের প্রতিটা ক্লিকই মনিটর করা হয়। যে ভিজিটর ক্লিক করেছেন সে কোথা থেকে রেফার হয়ে এসেছে, ব্লগে কতক্ষণ থাকার পর ক্লিক পড়েছে ইত্যাদি নানান বিষয় খেয়াল করা হয়।

তো এটি বোঝাই যাচ্ছে ফেইক ক্লিকের মাধ্যমে কখনোই এডসেন্স এর মাধ্যমে আয় করা সম্ভব না। তাছাড়া যারা ইসলাম ধর্মের অনুসারী তারা নিশ্চয়ই জানেন হারাম উপার্জন মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়, তো আপনি যদি ফেইক ক্লিক তথা নিজের এডে নিজে ক্লিক করে আয় করার চেষ্টা করেন তবে সেটা হবে প্রতারণার সামিল এবং শতভাগ হারাম।

কিন্তু একটা ব্যাপার দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য আমাদের দেশের প্রথম সারীর প্রযুক্তি ম্যাগাজিনগুলোতে কিছুদিন আগেও এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় হিসেবে নিজের এডে নিজে ক্লিক করানোই শিখানো হতো… তারা টাকা খরচ করে কেমন লেখক পোষেন তারাই ভালো জেনে থাকবেন, আমার এতে হস্তক্ষেপ করার অধিকার নেই, তবুও না বলে থাকা যায় না।

গুগল এডসেন্স এর এড শো করলে আপনি গুগল রেজাল্টে হাই র‍্যাঙ্কিং পাবেন:

এটাও অনেকটা কমন ধারণা, যেহেতু এডসেন্স গুগলের প্রোডাক্ট তাই হয়তো এডসেন্স ব্যবহার করলে আপনাকে সার্চ ইঞ্জিনের সার্চ রেজাল্টে গুগল কিছুটা দয়াপরবশ হয়ে উপরে দেখাবে। কিন্তু বাস্তবতা সম্পূর্ণ ভিন্ন, গুগলের প্রোডাক্ট হওয়া সত্ত্বেও আপনি গুগল এডসেন্স ব্যবহার করলে স্বাভাবিক অন্যান্য পেজের তুলনায় আপনাকে দুই এক র‍্যাঙ্ক পিছে দেখানো হতে পারে।

হয়তোবা এসইও এক্সপার্টরা অবাক হয়েছেন উপরের লাইনটি শুনে। হওয়ারই কথা, আর বাস্তবতা এটাই। কারণ গুগল সবসময়ই তাদের ক্লায়েন্টদের সর্বোচ্চ সুবিধা দিতে প্রতিশ্রুতি বদ্ধ। ধরুন নতুন একটা কমিক বই বের হয়েছে, সেই বিষয়ে আপনার একটা ব্লগ আছে, একজন ব্যক্তি হয়তো সেই কমিকটার ডিজিটাল কপি তার ওয়েবসাইটে বিক্রি করছে এবং ব্যবসার প্রচার ও প্রসারের লক্ষে সে এডসেন্সে এড দিয়েছে। যেহেতু আপনার ব্লগটি সেই কমিক বিক্রেতার এডের ক্যাটাগরি এবং কিওয়ার্ডের সাথে মিলে যায় সেহেতু হয়তো আপনার ব্লগে সেই এডটা দেখানো হচ্ছে। এখন যেহেতু এটি একটি কমিক বই সেহেতু এই বইটি সম্বন্ধে খোজ খবর নেয়ার জন্যে অনেকেই গুগলে সার্চ করবে; এর মধ্যে আবালবৃদ্ধবনিতা সকলেই থাকবে, মানে কম বয়েসি থেকে শুরু করে বড় যারা কমিক পছন্দ করে তারাও এ সম্বন্ধে তথ্য লাভের জন্যে গুগলে খোজ করবে। এখন  নিশ্চয়ই কম বয়েসি ছেলেটা নেট থেকে বইটা কিনার জন্যে সার্চ করেনি, সেহেতু সে যদি আপনার ব্লগে গিয়ে অই ব্যক্তির এডে ক্লিকও করে তবে আপনি লাভবান হলেও অই ব্যক্তিটি কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সাধারণত যারা নেট থেকে কিছু কিনে থাকেন তারা অধিকাংশই নেট চালাতে বেশ পারদর্শী, তাই তার কাঙ্ক্ষিত রেজাল্ট যদি কিছুটা নিচেও দেখায় তবে সে সেটা খুঁজে নিবে। এমতাবস্থায় আপনার ব্লগকে গুগল সকল বিষয়ে পারফেক্ট থাকার পরো এক নম্বরে না দেখিয়ে তিন নম্বরে দেখাচ্ছে, এর কারণ অই একই। এডসেন্স আপনার সার্চ ইঞ্জিন র‍্যাঙ্কিং কে খানিকটা প্রভাবিত করে ক্লায়েন্টকে কাঙ্ক্ষিত সেবা দেয়ার জন্যে। তবে তাই বলে যে আবার সব দিক দিয়ে ঠিকঠাক ভালো একটা ব্লগের প্রতি অবিচার করবে এমনও নয় গুগল। কারণ তাদের মূল কথাই তো “Don’t Be Evil“। সো কিছুটা প্রভাবিত করলেও খুব একটা অবিচার করবে না ব্লগ অনারের প্রতি।

এরকম আরও নানান ভুল ধারণা আছে অনেকের মধ্যে, আমার মধ্যেও যে নেই এমনটা হলফ করে বলতে পারবো না, তবুও আজকের মতো এটুকুই, আগামীতে হয়তো আরও কিছু বিষয়ে আলোচনা করবো। এসএসসির সিলেকশন টেস্ট চলছে, এর মধ্যে খানিকটা সময় বের করে একদমে লিখে ফেললাম, সকলের মতামত আশা করছি।

ফেসবুকে আমাকে পাবেন এখানে

ডিজে আরিফ এর বাংলা ব্লগ

Level 0

আমি ডিজে আরিফ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 60 টি টিউন ও 1484 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি আরিফ, সাধারণ একজন আরিফ! চাই অসাধারণ কিছু করতে, সম্ভব কিনা জানিনা কিন্তু ইচ্ছাশক্তির বলে অনেক কিছুই করতে চাই। ব্লগিং - এর সাথে পরিচয় খুব বেশি দিনের না, তবুও বিষয়টাকে ব্যাপকভাবে উপভোগ করছি। ভালো মানের ব্লগার হওয়ার ইচ্ছা আছে। বর্তমানে আমি দশম শ্রেণীতে ঢাকার স্বনামধন্য বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করছি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

valo hoeche chalie jaan aro asa korchi.

Level 0

achha vaia, adsence paoar pore amar site e je kharap site gulor advertise dey,ar oi kharap site gulote jokhon keu amar siter maddhome jabe, tokhon oita ki haram na? oitar paap ki amar hobena?
amake bhul bujhbenna plz,ami apnar ei line tar jonno kotha ta bolam—-“তাছাড়া যারা ইসলাম ধর্মের অনুসারী তারা নিশ্চয়ই জানেন হারাম উপার্জন মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়, তো আপনি যদি ফেইক ক্লিক তথা নিজের এডে নিজে ক্লিক করে আয় করার চেষ্টা করেন তবে সেটা হবে প্রতারণার সামিল এবং শতভাগ হারাম।”
jodi etar kono shomadhan thake to plz janaben bhai

    @learner: অবশ্যই সেটা খারাপ হবে, আপনি ইচ্ছা করলেই সেসকল হার্মফুল মানে খারাপ এডগুলোকে ফিল্টার করে দিতে পারেন, ফলে সেই খারাপ এডগুলো আর দেখাবে না…

      Level 0

      @ডিজে আরিফ : wow, vaia, tahole to khubi bhalo, advertise bechhe near system je ache sheta ami jantamna, amar ekta blog achhe, shudhu ei karoner jonnoi ami adsence apply kortamna, ekhon korte hobe, apnake oshonkho thnx

      @ডিজে আরিফ: আপনাকেও অনেক অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া…

আরিফ ভাই, এডসেন্স সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে কিছু লিখলে ভাল হয়। এডসেন্সের প্রাথমিক ধারনাটা দিলে নতুন যারা ব্লগিং শুরু করছেন তাদের উপকার হত।

    @নিসঃঙ্গ পথিক: আপাতত এসএসসির সিলেকশন টেস্ট চলছে, তো শেষ হোক, তারপর দেখি ধারাবাহিক কিছু করা যায় কিনা, অন্য কেউ যদি করতে ইচ্ছুক থাকেন তো আওয়াজ দিয়েন…

মাসাল্লাহ, লেখাটা দারুন হইসে 🙂

“হালি হালি ওয়েবসাইট বানাবো, ব্লগ বানাবো, সবার কাছ থেকে সেরা সব কপি করবো ব্যস টাকা পয়সা সব আমার, আমিই হবো মিলিয়-নিয়ার” 😛 😛

Level 0

amo a rokom vabe 3ta adsense account hariye…1 din 1ta tune dekhlam real hide ip diye ip change kora jay. tokhon ip change kore nijer ad nijeii click korte thaki..1 ghonta click korar por dekhi 100$ ar upore hoyeche.. por din amar kache 1ta mail aslo invalid click ar jonno amar acoount ta disable kora hoyeche.. tarpor R 1ta blog khule amar request kori. request korar por din amar adsense account paye jai. koyek din hoye gelo kau amar add click kore na. tai amar ip change kore 2 ta click kori. ar por din amar account disable hoye geche. tarpor aamr 1ta adsense account pai. ota-te r ami click kori nai. 2 din por amar account a kholar por dekhi 1ta mail asolo je amar account disable. tai akhon R adsense niye chinta kori. janlam je net theke taka income kora onek kothin. R tai akhon freelancing tune theke dore thaki.

    @.com: বাহ আপনিতো বেশ কয়েকবার ভুল করার পরও ভালোই সুযোগ পেয়েছেন রিকভার করার, তা আরেকটু জানাশোনা করে মাঠে নামলে উপকার হতো আপনার… যাইহোক ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে আছে ভালো কথা, লেগে থাকুন, উন্নতি হবেই আশা করি…

Level 0

সত্য কথা বলেছেন।
আমার মনে হয় শুধু এ্যাডসেন্স না অনলাইন আয়ের সকল ক্ষেত্রেই রয়েছ বেশকিছু ভুল ধারনা এবং গুজব ।
তবে শুধু এতটুকু বিশ্বাস করি এখানে শুধু স্পেশাল পার্সনরাই টিকে থাকে 🙂 , অন্য সাবাই আউট হয়ে যায়। 🙁

    @M H BULBUL: @M H BULBUL: স্পেশাল পার্সন হওয়ার তেমন প্রয়োজনীয়তা দেখছি না, যেকেউ রুলস গুলো মেনে সঠিক ভাবে ফলো করলেই সফলতা পাবে…

Level 0

শতকরা কত পরসেন্ট ইউনিক আর কত পারসেন্ট কপিপেস্ট হলে এডসেন্স বাতিল হয়না