বছরে এক লক্ষ Apple Car তৈরি করবে Kia

Level 28
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা

সম্প্রতি জানা গেছে এক বছরে Kia এক লক্ষ Apple Car তৈরি করবে। নিজস্ব গাড়ি প্রবর্তনের লক্ষ্যে অ্যাপল আসছে ১৭ ই ফেব্রুয়ারি একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে পারে।

অ্যাপল এবং Hyundai এর সহায়ক কোম্পানি Kia, ইলেক্ট্রনিক কার তৈরি করতে একটি পার্টনারশিপে যেতে পারে। প্রাথমিক চুক্তি অনুযায়ী প্রতি বছর তারা এক লক্ষ Apple Car তৈরির টার্গেট নিয়েছে।

অ্যাপল কিয়ার সাথে সহযোগিতার অংশ হিসাবে চার ট্রিলিয়ন উইন ব্যয় করবে, যা প্রায় ৩.৬ বিলিয়ন ডলারের সমান।  Bloomberg দক্ষিণ কোরিয়ার নিউজলেট Dong-A এর একটি স্থানীয় প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, যেখানে দাবি করা হয়েছে, ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে একটি চূড়ান্ত উৎপাদন চুক্তি হতে পারে দুটি কোম্পানির মধ্যে। প্রতিবেদন বলছে প্রতি বছর Kia এর ৪০০, ০০০ ইউনিট উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে।

অ্যাপলের নির্ভরযোগ্য বিশ্লেষক Ming-Chi Kuo একটি বিনিয়োগ নোটে বলেছে, অ্যাপল এবং Hyundai এর পার্টনারশিপে, ম্যানুফেকচার এবং ডিজাইন সার্ভিসও অন্তর্ভুক্ত করা উচিৎ।

অন্য কোম্পানির সাহায্য ছাড়া অ্যাপলের একার পক্ষে তাদের নিজস্ব গাড়ি উৎপাদন সম্ভব না। গাড়ি উৎপাদনের একটি সাপ্লাই চেইন তৈরি করতেই অ্যাপলের কয়েক বছর সময় লাগবে। বিশেষজ্ঞ বলছে, স্মার্টফোন তৈরি করতে যে পার্টসের দরকার হয়, তারচেয়ে ৪০ থেকে ৫০ গুন বেশি পার্টস লাগবে ইলেক্ট্রনিক কার তৈরি করতে।

একজন বিশ্লেষক বলছে, Hyundai এর সহযোগিতায় অ্যাপল কম সময়ের মধ্যে তাদের প্রত্যাশিত গাড়ি উৎপাদন করতে পারবে, কারণ তাদের গাড়ি উৎপাদন, ডিজাইনে রয়েছে দারুণ অভিজ্ঞতা।

রিসার্চ নোটে জানা গেছে অ্যাপল, সেলফ ড্রাইভিং হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ব্যাটারি, অভ্যন্তরীণ ডিজাইন, এবং নিজস্ব ইকো-সিস্টেমের দিকে ফোকাস করবে।

Ming-Chi Kuo বলেছেন Apple Car, Hyundai এর নতুন E-GMP ইলেকট্রনিক প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করবে।

আসছে ভবিষ্যতে ইলেকট্রনিক কার হতে পারে অন্যতম ট্রেন্ড আর এইজন্যই বিশ্বের বড় বড় কোম্পানি গুলো এটিতে সফল হতে প্রচুর পরিশ্রম করছে। এর অন্যতম উদাহরণ হতে পারে Elon Musk এর টেসলা। তবে অ্যাপলের মত স্মার্টফোন কোম্পানি কেন গাড়ি উৎপাদনে আগ্রহী? এই প্রশ্নের একমাত্র উত্তর হতে পারে নতুন এবং লাভজনক উপার্জন উৎস। তাছাড়া তাদের যথেষ্ট সক্ষমতাও রয়েছে।

জেপি মরগান বিশ্লেষক সামিক চ্যাটার্জি বলেছেন, অটোমোবাইল শিল্পের জন্য মোট সম্বোধনযোগ্য বাজারটি বর্তমানে ২.৫ ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে।
যা স্মার্টফোন বাজারের তুলনায় প্রায় ৪২০ বিলিয়ন ডলার বেশি মূল্যবান।

-
টেকটিউনস টেকবুম - ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Level 28

আমি সোহানুর রহমান। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 461 টি টিউন ও 186 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 55 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কখনো কখনো প্রজাপতির ডানা ঝাপটানোর মত ঘটনা পুরো পৃথিবী বদলে দিতে পারে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস