ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

Redmi এর নতুন ফ্ল্যাগ-শিপ স্মার্ট-ফোন Redmi K30 Ultra

টিউন বিভাগ টেকটিউনস টেকবুম
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

Redmi অফিসিয়ালি  লঞ্চ করেছে তাদের নতুন ফ্ল্যাগ-শিপ স্মার্ট-ফোন Redmi K30 Ultra। পূর্ণ এই ফ্ল্যাগ-শিপ ফোনটিতে দেয়া হয়েছে MediaTek Dimensity 1000+ 5G Processor, 120Hz AMOLED Display, 64MP Quad-Camera, এবং একটি  Dual Stereo Speaker। ফোনটি চীনের বাজারে আসবে ১৪ আগস্ট এবং মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় ২৯৪ ডলার। চলুন বিস্তারিত দেখে নেয়া যাক কি কি থাকছে Redmi এর Redmi K30 Ultra স্মার্ট-ফোনে।

ADs by Techtunes ADs

ডিসপ্লে

রিডিং, গেমিং, ভিডিও ওয়াচিং এর ক্ষেত্রে Redmi K30 Ultra এর 120Hz AMOLED স্ক্রিন দেবে ভিন্ন অভিজ্ঞতা। এর Pop-up ক্যামেরা থাকায় এতে থাকবে না কোন Notches এতে করে ফ্রন্ট ডিসপ্লে পাবে ৯৩.৭% কভারেজ।

Redmi K30 Ultra এর দুর্দান্ত ডিসপ্লেটি তৈরি করা হয়েছে Samsung E3 AMOLED ম্যাটারিয়াল দিয়ে যা দেবে দারুণ ব্যাটারি ইফিসিয়েন্সি সাথে 1, 200nits ব্রাইটনেস, সাথে থাকবে 5000000:1 Contrast Ratio, ১০০% কভারেজের DCI-P3 Color Gamut, এবং HDR10+সাপোর্ট। একই সাথে ডিভাইসটি দিচ্ছে ভিভিট এবং কালারফুল ভিউয়ের গেরান্টি। ডিসপ্লেটি একই ভাবে সাপোর্ট করে 120Hz Refresh Rate এবং 240Hz Touch Sampling Rate দেয় Ultra Smooth এবং High Frame-Rate গেমিং এবং ভিডিও অভিজ্ঞতা। ডিসপ্লে টি স্বয়ংক্রিয়ভাবে 60Hz থেকে 120Hz, Frame rate এ সুইচ করে ব্যাটারি Consumption দারুণ আপটিমাইজ করতে পারে।

360° light Sensing Technology এর মাধ্যমে ফোনটির Automatic Brightness Adjustment হয়েছে আরও নিখুঁত এবং স্মুথ।

অডিও

Redmi স্মার্ট-ফোনে প্রথমবারের মত দেয়া হয়েছে Dual Stereo Speaker, যা আপনাকে দেবে দারুণ এক মিউজিক অভিজ্ঞতা।

ফোনটিতে আছে Audio Zoom সাপোর্ট। গতানুগতিক Dual-Mic থেকে Redmi K30 Ultra তে দেয়া হয়েছে তিনটি মাইক্রোফোন। যা ভিডিও এর পাশাপাশি দিতে পারবে চমৎকার এবং পরিষ্কার সাউন্ড।

প্রসেসর

Redmi K30 Ultra, একটি MediaTek Dimensity 1000+ 5G Flagship Processor সহ 7nm প্রসেস এবং সর্বশেষ উচ্চ কার্যকারিতা ARM Cortex-A77 এবং Mali-G77 Cores দ্বারা চালিত।  এটিকে 530, 000 এরও বেশি AnTuTu score স্কোর দেয়া হয়েছে।

স্মার্ট-ফোনটি বড় এবং ছোট কোর এর সংমিশ্রণে একটি Six-core Independent APU 3.0 দিয়ে অসাধারণ AI কার্যকারিতা নিয়ে গর্ব করে, যা ফোনটির বিভিন্ন কার্যকারিতায় আরও ভাল ভাবে সমন্বয় করতে পারে।

ADs by Techtunes ADs

Dual Hyper Engine 2.0 এবং Game Turbo Optimization Engine একে বাজারের বেশিরভাগ গেম গুলোর জন্য বেশ উপযুক্ত করে তুলেছে। যা দিয়ে পাওয়া যায়, দ্রুত, রেসপন্সিভ এবং ঘর্ষণহীন গেমিং অভিজ্ঞতা।

নেটওয়ার্ক

Redmi K30 Ultra ফোনটিতে সাপোর্ট করে চীনের মূল ভূখণ্ডে সবচেয়ে উন্নত SA/NSA ডুয়েল মুড 5G নেটওয়ার্ক। এটি বিশ্বের প্রথম ডুয়েল 5G সাপোর্ট করা ফোন গুলোর মধ্যে একটি। Redmi K30 Ultra, স্মার্ট ডুয়েল সিম স্যুইচ ফাংশনের মাধ্যমে সর্বদা ফোনে 5G কানেক্টিভিটি নিশ্চিত করে। এর 5G Dual Carrier প্রযুক্তি শুধু 5g স্পিড দ্বিগুনই করে না একই সাথে সিগনাল রেঞ্জ ও বাড়ায়।

ডিভাইসটি বিচক্ষণতার সাথে ইউজেস লোডের ভিত্তিতে নেটওয়ার্ক ব্যবহার নিশ্চিত করে। এর স্টেবল এবং দ্রুত গতির 5G কানেকশন, লিফট, ট্রেন, আন্ডারগ্রাউন্ড এর মত কঠিন জায়গা গুলোতেও দারুণ কাজ করতে পারে।

একটি 3, 495mm² আলট্রা-লার্জ এরিয়া বাষ্প চেম্বার সহ, একটি Graphene + Graphite 3D Heat Dissipation সিস্টেম, Redmi K30 Ultra কে দীর্ঘ ব্যবহারের পরেও স্থিতিশীল কর্মক্ষমতা দিতে সাহায্য করে।

ক্যামেরা

ডিভাইসটিতে দেয়া হয়েছে Quad Rear Camera সেটআপ, এতে আছে 64MP মেইন ক্যামেরা, 13MP Ultra-Wide Angle ক্যামেরা, 5MP Telemacro ক্যামেরা এবং একটি 2MP Portrait Depth Sensor।

ফোনটির 64MP ক্যামেরা Four-in-One 1.6μm large Pixels সাপোর্ট করে। এটি হার্ডওয়্যারকে চারটি ছোট পিক্সেলকে একত্র করে ৬৪ মেগাপিক্সেলের আলট্রা ক্লিয়ার ইমেজ দিতে সাহায্য করে। স্ট্যানিং ল্যান্ডস্কেপ শট নিতে 119° Ultra Wide-angle ল্যান্সটি দারুণ কাজ করে। একই সাথে 2MP Portrait Depth সেন্সরটি মেইন ক্যামেরার সাথে যুক্ত হয়ে চমৎকার Portraits এবং ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার ছবি দিতে পারে।

5MP Telemacro ল্যান্সটিতে দেয়া হয়েছে 50mm সমপরিমাণ  Focal Length, যা বাজারের স্ট্যান্ডার্ড স্মার্ট-ফোন গুলোর Macro লেন্স এর দ্বিগুণ। এটি যেকোনো অবজেক্টের ইমেজ স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা দূর থেকে নেয় যাতে করে দৃশ্যের সংখ্যা বাড়ে।

ADs by Techtunes ADs

ফোনটি AI ব্যবহার করে আপনাকে দেবে সৃজনশীল ফটোগ্রাফি, যেমন এতে দেয়া হয়েছে AI Skyscaping এবং Photo Clones ফিচার। Photo Clones ফিচারের মাধ্যমে ইউজাররা ছবি এডিট না করেই একাধিক ক্লোন ছবি তুলতে পারবে এবং AI Skyscaping এর ফিচারের মাধ্যমে তুলা যাবে দারুণ ন্যাচারাল ছবি।

ব্যাটারি

ফোনটিতে দেয়া হয়েছে 33W ফাস্ট চার্জিং এর সাথে 4, 500mAh ব্যাটারি যা ইউজারকে দেবে ফুল ডে ব্যাকআপ। ব্যাটারি ফুল হতেও সময় লাগবে মাত্র ১ ঘণ্টা।

অন্যান্য

NFC  সাপোর্ট এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা ট্রান্সপোর্ট কার্ড, ব্যাংক কার্ড বহণ থেকে মুক্তি পেতে পারবে।

ফুল ফ্ল্যাগ-শিপ কনফিগারেশনের জন্য এতে দেয়া হয়েছে লিনিয়ার মটর যা উচ্চ বাইব্রেশন সহ যেকোনো পরিস্থিতিতে দ্রুত রিয়েক্ট করতে পারে, ট্রেডিশনাল গৃহস্থালির জিনিস পত্র গুলো কন্ট্রোল করার জন্য এতে যুক্ত করা হয়েছে IR এবং এতে আছে অতিরিক্ত সিকিউরিটির জন্য ইন-স্ক্রিন ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর।

ফোনটি তিনটি কালারে এসেছে যেমন, Moonlight White, Midnight Black, এবং Mint Green। একই সাথে ফোনটির আছে চারটি আলাদা আলাদা স্টোরেজ ভার্সন, 6GB+128GB, 8GB+128GB, 8GB+256GB এবং 8GB+512GBএবং দাম যথাক্রমে 293, 322, 366, এবং 396 ডলার।

ফোনটি চীনের মূল ভূখণ্ডে পাওয়া যাবে ১৪ আগস্ট থেকে।

Redmi K30 Ultra ফুল স্পেসিফিকেশনঃ

Redmi K30 Ultra
Display6.67” AMOLED ultimate Full Screen Display

2400×1080 FHD+ display

ADs by Techtunes ADs

120Hz refresh rate

240Hz touch sampling rate

Contrast ratio: 5, 000, 000:1

Brightness: 800nit (Typ)/1, 200nit (HBM)

360° triple ambient light sensor

Dimensions163.3 x 75.4 x 9.1mm, 213g
ColorsMoonlight White, Midnight Black, Mint Green
ConnectivitySA/NSA, Dual 5G standby3

Wi-Fi 6, 5G MultiLink

Multifunctional NFC, IR blaster

ProcessorMediaTek Dimensity 1000+ 5G processor

7nm processing

Storage6GB+128GB, 8GB+128GB, 8GB+256GB, 8GB+512GB
Rear Camera64MP+13MP+5M+2MP quad camera

64MP high-resolution main camera

1.6μm 4-in-1 Super Pixel

ADs by Techtunes ADs

13MP 119°ultra wide-angle camera

5MP telemacro camera

2MP depth sensor

Front *Camera*20MP pop-up front camera

Supports 120fps front slow motion

Multi-color notification light

Drop protection

SecurityIn-screen fingerprint sensor
Battery & Charging4, 500mAh(typ) battery

33 watts fast charge

In-box charger: 33W

USB Type-C

AudioDual stereo speakers

Hi-Res Audio certification

ADs by Techtunes ADs

Audio Zoom

MotorZ-axis linear vibration motor

Xiaomi কর্পোরেশনটি ২০১০ সালের এপ্রিল মাসে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং হংকং স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান বোর্ডে তালিকা ভুক্ত হয় ২০১৮ সালে। একটি ইন্টারনেট সংস্থা যারা একই সাথে রয়েছে স্মার্ট ফোন এবং স্মার্ট হার্ডওয়্যারও তৈরি করে।

উদ্ভাবন এবং মানের উপর সমান জোর দিয়ে, Xiaomi অবিচ্ছিন্নভাবে উচ্চ-মানের ইউজার এক্সপেরিয়েন্স এবং পরিচালন দক্ষতার পরিচয় দিয়ে আসছে। উদ্ভাবনী প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের প্রত্যেককে উন্নত জীবন উপভোগ করতে সংস্থাটি নৈয্য মূল্যে, নিরলসভাবে আশ্চর্যজনক পণ্যগুলি তৈরি করে চলেছে।

Xiaomi বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম স্মার্ট-ফোন ব্র্যান্ড এবং স্মার্ট-ফোন, ল্যাপটপ বাদ দিয়েও শীর্ষস্থানীয় IoT  প্ল্যাটফর্মটি প্রতিষ্ঠা করেছে। যেখানে প্রায় ২৫২ মিলিয়ন স্মার্ট ডিভাইস কানেক্ট আছে। শাওমির পণ্যগুলি রয়েছে বিশ্বের ৯০ টিও বেশি বাজারে।

২০২০ সালের আগস্টে, প্রথমবারের মতো সর্বকনিষ্ঠ সংস্থা হিসাবে তালিকা ভুক্ত হাবার এক বছর পর, সংস্থাটি ২০২০ সালের Forbes Global এ ৫০০ তালিকায় ৪২২ তম স্থানে ছিল। 2020 সালের মে মাসে, সংস্থাটি  Forbes Global এ এ ২০০০ এর মধ্যে ৩৮৪ তম স্থান অর্জন করে।

বাংলাদেশ ভারত সহ পাশাপাশি বিভিন্ন দেশ গুলোতে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এর স্মার্ট-ফোন গুলো। আশা করা যায় ফোনটিও আমাদের দেশে আসার পর দারুণ জনপ্রিয়তা পাবে।

-
টেকটিউনস টেকবুম -১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি টেকটিউনস টেকবুম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 409 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস