সব থেকে বড় প্রযুক্তির অবদান গুলো কি ছিলো? দেখুন

শুভ মধ্যরাত,

কেমন আছেন সবাই? পুরো ১! দিন পরে টেকটিউনসতে লিখতে বসলাম।  মানুষ বড় কে ভালোবাসে, নিজেরা বড় হতে চায়। আমরা আজ হয়তো বিশাল বিমানে ৩০০ যাত্রী নিয়ে উড়তে পারি, আমাদের নাহয় ১০০ তলা দালান আছে, কিন্তু গত শতকে? তখন ও কিন্তু মানুষ থেমে ছিলো না। বানিয়েছে খুব বড় কিছু যেগুলোর রেকর্ড এখন ও ভাঙ্গা হয়নি। আজ দেখবো এমন কিছু।

১। সব থেকে বড় চর্কি

01

ইংরেজী তে wheel বললেও আমার কাছে এটাকে চাকা বলে মনে হয় না। আমাদের এলাকায় চর্কি বলে, আপনার এলাকার নাম বুঝে নেন ছবি দেখে। ১৮৯৫ থেকে ১৯০০ সাল পর্যন্ত ৫ বছর সময় ব্যায় করে লন্ডনে এটি তৈরী করা হয়েছিলো। এতে মোট বসবার মত কেবিন ছিলো ৪০ টি, এবং প্রতি কেবিনে বসতে পারতো ৪০ জন মানুষ!সর্বোচ্চ স্পিডেও পুরো এক পাক ঘুরে আসতে সময় লাগতো ২০ মিনিট। পরে ১৯০৭ সালে এটি ভেঙ্গে ফেলা হয় কারন লস! হচ্ছিলো।

এখন পৃথিবীর সবথেকে বড় চর্কি আছে সেই লন্ডনেই। নাম " দি লন্ডন আই " (The London Eye)। সেটার ছবি দেখবেন?

The London Eye

এটা লন্ডন আই।

A London Eye Capsule

এটা একটা কেবিনের ভেতর পাশ।

The London Eye

The London Eye and County Hall

The London Eye at Night

২। কাচের প্রাসাদ।

04

স্যার জোসেফ প্যাক্সটন নামে এক ভদ্রলোক ১৮৫১ সালে ২৩ একর যায়গার উপরে বানালেন এক ক্রিস্টাল নির্মিত ভবন। সে সময়ে ডিজাইন টাও ছিলো নতুন, আর এরকম আইডিয়া আবার যার তার মাথা থেকে তো বের হয় না। লন্ডনে এই ভবন টির উচ্চতা ছিলো ৩০ মিটার, লম্বায় ছিলো ৫৬৩ মিটার। দুঃখের বিষয় ক্রিস্টাল গুলো ১৯৩৬ সালে এক অগ্নিকান্ডে শ্যাষ!

ছিলো এমন, শ্যাষ হবার পরে হয়ে গেলো এমন

৩। সবথেকে বড় ক্রেন

05

ছবি দেখেই বুঝছেন এটা কি জিনিষ, এবার ছবি ট ভালো করে দেখেন, একজন মানুষ দেখা যাইতেছে না? এবার চিন্তা করেন এর সাইজ। ওজন ২ লক্ষ কেজি এর মত!এটারে বলা হতো "Big Muskie"। বেশীকিছু জানি না, আপনার আগ্রহ হলে গুগলিং করে জেনে নেবেন।

আজকে আর না, কাল নাহয় পরশূ আবার দেখা হবে। থাকেন, কেমন লাগলো টিউমেন্ট করে জানাবেন, আগ্রহ পাই এতে লেখার।

লেখাটা এর আগে আমার সাইট ফাজলামী ডট কম এ প্রকাশিত, আর আমি ফেসবুকে আছি কোন লাইভ সমস্যায়।

Level New

আমি শিমুল শাহরিয়ার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 90 টি টিউন ও 497 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমার সম্পর্কে আমি নিজেও খুব বেশী একটা জানি না । তাই কিছু বলার/লিখার সাহস পেলাম না , আমার সাইট http://www.fajlami.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ধন্যবাদ ভাই শেয়ার করার জন্য
আপনার আগের টিউন গুলো দেখেছি সেইরকম টিউন ।
পরবর্তী টিউন এর অপেক্ষায় রইলাম ।

Level 2

দারুন, ধন্যবাদ।

খুভ ভালো হয়েছে, পুরনো কিছু জানার মজাই আলাদা “অসাধারণ”

Osdharon……..Thank u ……………..Area 51 niye ekta review den boro kore……….. sobar valo lagbe

সবাই কে ধন্যবাদ ব্রাদার, এরিয়া ৫১ নিয়ে আমার নিজের ও আগ্রহ আছে, এনিয়ে আগেও লেখা হইছে, ঠিক আছে দেখি অজানা কি জানানো যায়। সাথে থাকার জন্য আবার ধন্যবাদ সবাই কে

খুভ ভালো হয়েছে। ধন্যবাদ।