দাড়ি কিংবা গোফে বাহারি কাট ছাট

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে ''আজকের ডিল ডট কম''
Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপণ দিতে ক্লিক করুন এখানে

এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন ব্লেড দিয়ে সেভ করার কারণে ত্বকের মারাত্নক ক্ষতি হয়। তাহলে সহজ সমাধান কি? আর কিভাবে তারকাদের মত সারাদিন ফুরফুরে থাকা যায়? দাড়ি কিংবা গোফে বাহারি কাট ছাট দিয়ে তারকা সাজার ভাব প্রায় প্রতিটি পুরুষের মধ্যেই রয়েছে। প্রিয় তারকার মতো শেপ দিয়ে চুল কিংবা দাড়ি রাখতে আপনার অন্যতম অনুসঙ্গ হতে পারে ইলেকট্রিক ট্রিমার। ইলেকট্রিক শেভার দিয়ে মুহুর্তেই কোনরুপ কাটা-ছড়ার ঝুঁকি ছাড়াই ইচ্ছেমতো দারুণ সব শেপ দিতে পারেন নিজের গোফ কিংবা দাড়িতে।

 
বর্তমান সময়ে আধুনিতার ছোঁয়া সর্বত্র। ম্যানুয়াল রেজারের বদলে এসেছে আধুনিক ইলেকট্রিক ট্রিমার। কম সময়ে ঝুঁকিমুক্ত আরামদায়ক শেভ। অনেক আগে থেকে, মূলত শুরুর দিকে প্রাচীন যুগে ঝিনুকের খোলস, মাছের বড় কাঁটা বা পশুর হাড়ের অংশ দিয়ে চলত ছাঁটাই-কাটাই। আলেকজান্ডার দ্য গ্রেটের সময় থেকে শুরু হয় দাড়ি-গোঁফ কামানোর প্রথা। ত্বক মসৃণ রাখা তখন খুব কঠিন ছিল পুরুষের জন্য। আর এখন শুধু একটা বোতামের চাপই যথেষ্ট।

 

সুবিধা : যখন-তখন, ঘরে-বাইরে, যে কোনো জায়গায় সহজে বহন ও ব্যবহার করা যায়। এটি ব্যবহারে কাটার শঙ্কা কমায়। এতে কোনো আলাদা শেভিং ক্রিম বা লোশনের প্রয়োজন হয় না। এএগুলো খুব সহজেই যে কোনো ধরনের চেহারায় ব্যবহার করা যায়। ফয়েল ইলেকট্রিক শেভার, এই যন্ত্রে ব্লেড একটি পাতলা ছিদ্রযুক্ত স্টিল ফয়েলের পেছনে লুকানো থাকে এবং পাশাপাশি দুলে। সাধারণত কাজ সারে এ শেভারগুলো।


ত্বকের ধরন বুঝে আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী কিনতে পারেন ইলেকট্রিক ট্রিমার। যাদের ত্বক এবং দাড়ি-গোঁফ রুক্ষ, তারা ব্যবহার করতে পারেন রোটারি ইলেকট্রিক শেভার। যাদের দাড়ি-গোঁফ তাড়াতাড়ি বাড়ে তারা ব্যবহার করতে পারেন ফয়েল ইকেট্রিক শেভার। আপনার পছন্দ অনুযায়ী বেছে নিন ইলেকট্রিক শেভার। রঙচঙে শেভারের রকমারি ফিচারে ভুলে না গিয়ে নামি ব্র্যান্ডেরটি বেছে নেওয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। শেভারের ব্যাটারির মেয়াদ, ব্লেডগুলো কোয়ালিটি আর ভেতরের কলকব্জা যাচাই করে নিন।

 

বাজারে হরেক রকম ইলেকট্রিক শেভার ও ট্রিমার পাওয়া যায়। ব্র্যান্ডও রয়েছে অনেক। এর মধ্যে আছে কিমেই, ফিলিপস, নোভা, এইচটিসি, ফিলিপস নরেলেস্পিড, ব্রন সিরিজ, প্যানাসনিকসহ আরও অনেক। সুপার শপগুলোয় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ইলেকট্রিক শেভার ও ট্রিমারের দাম পড়বে ৫০০ থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।

যত্ন : ইলেকট্রিক শেভার ও ট্রিমার ব্যবহারের পর পরিষ্কার করে রাখা ভালো। প্রতিবার না পারলেও তিনবারে অন্তত একবার পরিষ্কার করে রাখুন। মাসে অন্তত একবার ব্লেডগুলো খুলে সাবান পানিতে ধুয়ে নিতে পারেন। শেভারের স্কিনে কখনও ব্রাশ লাগাবেন না। এতে টিকবে বেশি দিন।

এই ট্রিমার ও শেভার গুলো আপনি ইচ্ছে করলে ঘরে বসেই কিনে নিতে পারেন। নতুন মডেলের শেভার ও ট্রিমার সবচেয়ে কম দামে কিনতে ঢুঁ মারুন দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিংমল আজকেরডিলের ওয়েবসাইটে। দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে দ্রুত ডেলিভারী নিতে ও কিনতে এখানে ক্লিক করুন

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে ''আজকের ডিল ডট কম''
Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপণ দিতে ক্লিক করুন এখানে

Level 4

আমি আজকের ডিল ডট কম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 690 টি টিউন ও 65 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 15 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস