শেষ চিঠিতে কি লিখেছেন হুমায়ুন আহমেদ এর মা আয়েশা ফয়েজ?

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে 'রকমারি ডট কম'
'Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপন দিতে ক্লিক করুন এখানে

একজন মায়ের লেখা চিঠি। শেষ চিঠি ।

সদ্য সন্তান হারা মা। সন্তানের জন্য হাহাকার, বিলাপ ধ্বনি আর অশ্রু মিলেমিশে একাকার হয়ে আছে চিঠির ভাষায়। মৃত্যু পরবর্তি জীবনের কিছু বিশ্বাস, সন্তানকে ঘিরে কল্পনা আর মায়ের সহজ-সরল উপলব্ধি এই নিয়েই রত্নগর্ভা মা আয়েশা ফয়েজ  লিখেছিলেন শেষ চিঠি। সবচেয়ে আকর্ষণের জায়গা একজন মায়ের ভানমুক্ত নির্ভেজাল অনুভূতি। যেখানে শুধুই আছে সন্তানের প্রতি ভালবাসার কথা, আছে সন্তান হারিয়ে বেঁচে থাকার নির্মম আবেগ আর সেই সাথে কিছু মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞতা।

প্রিয় সন্তান হুমায়ূন আহমেদের  মৃত্যুর পর ভীষণ মুষড়ে পরেছিলেন তার মা। তবুও নিজেকে সামলে যুক্ত হয়েছেন লেখালেখির সাথে। এরপর চিঠির সাহায্যে তিনি আত্মায় বিরাজ করা হুমায়ূনের সাথে কথা বলতেন। হয়তো প্রত্যুত্তর নেই তবে ছিল মানসিক প্রশান্তি। লিখেছেন বড় ছেলের অসুস্থকালে তার কষ্টের কথাগুলো।‘ কী কষ্ট! আহা কী কষ্ট! একদিকে মা, অন্যদিকে ছেলে মাঝখানে একটা পৃথিবী, এর থেকে বড় কষ্ট বুঝি আর নাই।’ যেদিন শেষ অপারেশন হয়। সেদিন মা আয়েশা ফয়েজ এক বৈঠকে ১০৪ রাকাত নামাজ আদায় করেছিলেন। এতটুকু ক্লান্ত হননি। কী প্রচন্ড মানসিক জোড় ছিল তার।

মনে পরে, জাপানের এক ভয়ঙ্কর ভুমিকম্পে এক মা তার তিন মাসের শিশুকে আগলে নিজের জীবন বিসর্জন দিয়েছিলেন। আর ফোনে টেক্সট মেসেজ এ লিখে গিয়েছিলেন ‘If you can survive, you must remember that I love you’। মা তো এমনই। সন্তানের জন্য যে মা নিজের জীবনের সবটুকু ত্যাগ করতে রাজি। সন্তানের নিষ্প্রাণ দেহ দেখে সে মায়ের বুকের বা পাশটা কতটা খালি হয়ে গেছে তা কেবল তিনিই জানেন। বড় অসহায় মনে হয় নিজেকে। মনে হয় সন্তানকে ছিনিয়ে নিয়ে আসা যেত মৃত্যুপুরী থেকে। কিন্তু না প্রকৃতি শুনছে কই? শূন্য হৃদয় যে পূর্ণ হবার নয়, হতে নেই।

তাইতো জীবনের শেষ লগ্নে এক সন্তান হারা মা লিখতে বসেছিলেন সেই হৃদয় বিদারক শেষ চিঠি। যা কোনদিন টিউন হবার নয়...

The Rubik's Cube is a three-dimensional twisty puzzle. Learn the easiest Rubik's Cube solution here.

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে 'রকমারি ডট কম'
'Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপন দিতে ক্লিক করুন এখানে

Level 0

আমি রকমারি ডটকম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 122 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

কৌতূহল আছে বলেই মানুষ বেঁচে থাকার মাঝে অর্থ খুঁজে পায়। কৌতূহল সৃষ্টি করতে হলে মানুষকে তাঁর জগত ও কালপরিক্রমা সম্পর্কে সংবেদনশীল হতে হবে। সংবেদনশীলতা আসে পাঠাভ্যাসের মধ্য দিয়ে। অথচ আশঙ্কাজনক হারে, আমাদের দেশের মানুষের পাঠ্যাভ্যাস হ্রাস পাচ্ছে। কারণ বহুবিধ। যারা ঢাকায় থাকেন, যানজট এর দীর্ঘ ভোগান্তি সয়ে তাদের বই কিনতে...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস