জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (৭ম পর্ব)

আস-সালামু-আলাইকুম।

কেমন আছেন সবাই? আশা করি মহান আল্লাহ্‌র রহমতে সবাই ভালো আছেন। ৬ষ্ঠ পর্বেও আপনাদের ব্যাপক সাড়া পেয়ে আর আপনাদের জানার প্রবল আগ্রহ দেখে খুব ভালো লাগলো। তাই আপনাদের আরও কিছু মজার এবং নতুন তথ্য জানাতে বসে গেলাম।   আজ দিলাম এর  ৭ম পর্ব।   আজ দিলাম আরও নতুন কিছু তথ্য।  হয়ত এর অনেক তথ্য আপনি জানেন, হয়ত অনেক তথ্য জানেন না। জানার শেষ নেই। চলুন জেনে নেই কিছু তথ্য।

বিবিধ তথ্যঃ

►পৃথিবীতে একটি প্রাণীর নাম বলেন তো?, যার কোনো মগজ বা মস্তিস্ক অর্থাৎ ব্রেইন নেই? ভাবছেন যাহ, মগজ ছাড়া প্রাণী তা আবার হয় নাকি? আরে সত্যিই তাই! স্টার ফিশ নামের একধরনের সামুদ্রিক মাছের নাকি কোনো মগজই নেই। মগজের বদলে এক ধরনের স্নায়ুতন্ত্রের মাধ্যমেই তারা তাদের যাবতীয় কাজ করে থাকে। প্রশ্ন করতেই পারেন যে তাদেরকে কেনোই বা মাছ বলা হয়? তাহলে শোনেন, তারা আসলে মাছ নয়। পানির নিচে থাকে বলেই তাদেরকে তারা মাছ বা স্টার ফিস বলে ডাকা হয়।

►প্রথিবীতে কতই না প্রাণী। এতো বড় থেকে শুরু করে চোখে দেখা যায় না এমন প্রাণীও রয়েছে। তবে আমাদের পৃথিবীতে ৯৫% প্রাণীই একটা মুরগীর ডিমের চেয়েও ছোট।

►অনেকেই হেভি মেটাল মিউজিক শুনতে ভালোবাসে, আবার অনেকেই ভালোবাসে না। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো উইপোকারা হেভি মেটাল মিউজিক খুব পছন্দ করে। মিউজিক শোনার সময় তারা দ্বিগুণ গতিতে কাঠ কাটতে পারে।

►পৃথিবীতে বছরে প্রায় ১০০০০০০ এরও বেশী ভুমিকম্প হয়ে থাকে ।

►প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ১০০ বজ্রপাত পৃথিবীতে হয়ে থাকে ।

►এযাবৎকালের সবচেয়ে উচুতম গাছটি হল একটি অস্ট্রেলিয়ান ইউক্যালিপটাস গাছ, যার উচ্চতা ৪৩৫ ফুটের মতো ।

►ইলেকট্রিক ঈল মাছ প্রায় ৬৫০ ভোল্ট শক দিতে পারে ।

►সারা শরীর ঘুরে আসতে একটি রক্ত কোষের ৬০ সেকেন্ডের মতো সময় লাগে ।

►একজন পুরুষ দেহে এক সেকেন্ডে প্রায় ১০০০ কোষ শুক্র তৈরী হয়, প্রায় ৮৬০০০০০০ এক দিনে ।

►আকার অনুযায়ী গুবরে পোকা (বিটল) হল পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী পোকা, একটা রাইনোসোরাস গুবরে তার নিজের ‌ওজনের চেয়ে প্রায় ৮৫০ গুন বেশী বইতে পারে ।* মানব হৃৎপিন্ডদিনে প্রায় ১০০,০০০ বার স্পন্দিত হয় ।

►শিকারের কারনে বিলুপ্ত হবার প্রায় ১০০ বছর পর ১৫০৭ সালে ডোডো আবিস্কার হয় ।

►৪,৮০০ বছর আগে মিশরীয়রা ৩৬৫ দিনের বছর সম্পর্কে জানতো ।

রক্ত নিয়ে মজার তথ্য

►“O+” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা স্বচ্ছ দৃষ্টি সম্পন্ন, গভীর মনোযোগী, উচ্চাকাঙ্খী, স্বাস্থ্যবান, বাকপটু, বাস্তববাদী, রোমান্টিক এবং অত্যান্ত বুদ্ধিমান হয়ে থাকে।

►“O-” এই গ্রুপের মানুষেরা সাধারণত অন্যের মতামতকে গ্রাহ্য করে না। সমাজে মর্যাদা বাড়াতে আগ্রহী, বড়লোকের সঙ্গপ্রিয় এবং বড় বেশি বাচাল।

►“A+” এই ব্লাডগ্রুপের মানুষেরা গোছগাছ প্রিয়, দক্ষ চাকুরে এবং খুঁতখুঁতে স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা আত্নকেন্দ্রিক, সুবিচারক, শান্ত, নিয়মতান্ত্রিক, বিশস্ত, নিয়মানুবর্তী ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন।

►“A-”এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা খুব খুঁতখুঁতে স্বভাবের এবং কিছুটা অমনোযোগী। কিন্তু অপ্রয়োজনীয় বিষয়ে বেশি মনোযোগী। এদের অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার প্রবণতা বেশি। এদের আছে নিজেকে লুকানোর অভ্যাস এবং একঘেয়েমি জীবন।

►“B+” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা স্বাধীনচেতা, মেধাবী, নমনীয়, মনোযোগী, স্বাস্থ্যবান,সরল, দক্ষ, পরিকল্পনাবাদী, বাস্তববাদী,আবেগ প্রবণ এবং খুব বেশি রোমান্টিক হয়ে থাকে।

►“B-” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা অসংযমী, অপরিনামদর্শী, দায়িত্বহীন, অলস, স্বার্থপর, অগোছালো, অবিবেচক এবং স্বার্থান্বেষী হয়ে থাকে।

►“AB+” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা সাধারণত সুবিবেচক, বু্দ্ধি সম্পন্ন, হিসেবী, পরিকল্পনাবাদী, সৎ কৌশলী সংবেদনশীল, নিরেট এবং খুব চমৎকার সাংগঠনিক হয়ে থাকে।

►“AB-” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা দুর্বোধ্য, ক্ষমতাহীন, অন্যকে আঘাত করার প্রবণতা বেশি, এনার্জি স্বল্পতা, খুব বেশি রক্ষনশীল ও বড় বেশি সংবেদনশীল হয়ে থাকেন।

সুত্র: ৯০এর দশকের মাঝামাঝি প্রকাশিত “You and your Blood type” গ্রন্থ

মানব শরীরের মজার তথ্য

১. একজন স্বাভাবিক স্বাস্থ্যবান মানুষ ২৪ ঘন্টায় যা করে:

(ক) ২৩,০৪০ বার শ্বাস প্রশ্বাস নেয়
(খ) ৭,৫০০ লিটার রক্ত পাম্প করে
(গ) প্রতিরাতে গড়ে ১-১.৫ মিনিট স্বপ্ন দেখে
(ঘ) হৃৎপিণ্ড ১,৩০,৬৮০ বার স্পন্দিত হয়
(ঙ) গড়ে প্রায় ৪,৮০০ টি কথা বলে
(চ) ১ সের ২ ছটাক পানি পান করে
(ছ) মাথার মগজের ৭০ লক্ষ কোষ কোন না কোন কাজ করে
(জ) মাথার চুল ০.০১৭১৪ ইঞ্চি বাড়ে
(ঝ) সকালের তুলনায় সন্ধ্যায় উচ্চতা ১ সে.মি. হ্রাস পায়

২. মানব শরীরে ৭০% পানি ও ১৮% কার্বন রয়েছে
৩. একজন মানুষের হৃৎপিন্ড তার মুষ্টিবদ্ধ হাতের সমান
৪. হৃৎপিন্ড যেমনটা ভাবা হয় বুকের বামদিকে আসলে তা নয়. এটা মাঝখানেই তবে বামদিকে এক-তৃতীয়াংশ প্রসারিত.
৫. মানুষের শরীরে গিরার পরিমাণ ১০০ টি.
৬. চোখের একটা পলক ফেলতে ০.৪ সেকেন্ড সময় লাগে।
৭. মাথায় প্রতিদিন প্রায় ১০০ টি চুল গজায়।
৮. সুস্থ্ দেহে রক্তের গতিবেগ ঘন্টায় ৭ মাইল।
৯. একজন মানুষের গড় ক্ষমতা ০.১৪৩ অশ্ব ক্ষমতা।
১০. স্বাভাবিক জ়ীবন বেঁচে থাকলে মানুষ সাধারণত ২,৫০,০০,০০০ বার কাঁদে।
১১. মেয়েদের চেয়ে ছেলেদের নখ দ্রুত বাড়ে।
১২. একজন মানুষের সারা জীবনের হাতের আঙ্গুলের নখের বৃদ্ধিপ্রাপ্ত মোট দৈর্ঘ্য গড় হিসেবে ২৮ মিটার।
১৩. জ়ন্মের প্রথম বছরে একটি মানব শিশুর মুখ থেকে প্রায় ১৪৬ লিটারের সমপরিমাণ লালা নিঃসৃত করে।
১৪. জ়ন্মের প্রথম দুই বছরে একটি মানব শিশু হামাগুড়ি দিয়ে প্রায় ১৫০ কি.মি. দূরত্ব আতিক্রম করে।
১৫. একজন মানুষ প্রতিদিন ৬ ঘন্টা ঘুমালে সে যদি ৫০ বছর বাঁচে তবে তার জীবনের ১২.৫ বছর ঘুমের মধ্যে কাটে।

যারা পর্ব ১, ২, ৩, ৪ এবং ৫ দেখেননি তারা নিচের লিঙ্ক-এ ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন।

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (পর্ব-১)

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (পর্ব-২)

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (পর্ব-৩)

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (পর্ব-৪)

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (৫ম ও আপাতত শেষ পর্ব)

জানার শেষ নেই। তাই অজানা কিছু তথ্য আপনার জন্য। (৬ষ্ঠ পর্ব)

তথ্য গুলো সংগ্রহ করা।

এই টিউনটির উদ্দেশ্য আপনাকে নতুন কিছু তথ্য জানানো। আপনি যদি এই টিউন টি পরে নতুন কিছু জানতে পারেন তাহলেই এই টিউনটির উদ্দেশ্য সফল হবে।

সবাই ভালো থাকবেন।

Level New

আমি জাহিদ হাসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 71 টি টিউন ও 517 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি জাহিদ হাসান। জন্ম ১৯৯১ সালের ১ এপ্রিল। যেদিন থেকে প্রযুক্তির সংজ্ঞা শিখেছি সেদিন থেকেই প্রযুক্তির সাথে আছি। প্রযুক্তিকে সবথেকে বেশি ভালোবাসি। ভালোবাসি নতুন শিক্ষামূলক সব বিষয়ের সাথে থাকতে। ভালোবাসি প্রযুক্তির সাথে থাকতে। নতুনের পেছনে ছুটতে খুব ভালো লাগে আমার। হাসি-খুশি থাকতে ভালোবাসি। সবাইকে নিয়ে আনন্দে থাকতে ভালো লাগে। সবার...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

জটিল হয়েছে । চালায়ে যান । অনেক অজানা জিনিস জানলাম ।

@জ্ঞান-অন্বেষী,
এর মধ্যেই পরে ফেললেন বস। প্রথম মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ।

ব্লাড গ্রুপের অংশটুকু বোধহয় এই লিংক থেকে কপি করেছেন- http://www.muktokontho.com/1728

    @নাজমুল আহসান,
    ধন্যবাদ ভাই মন্তব্বের জন্য। আমার সব গুলো তথ্যই ইন্টেরনেট থেকে নেয়া। আমি সেটা বলেছি। তবে একেকটি টিউন এর তথ্য অনেক যায়গা থেকে নেয়া হয় বলে সব Source উল্লেখ করা সম্ভব হয়না। আর ব্লাড গ্রুপের অংশটুকু আপনার দেয়া লিঙ্ক থেকে নেয়া হয়নি। তবে ইন্টেরনেট থেকেই নেয়া হয়েছে। তথ্য গুলো

    সুত্র: ৯০এর দশকের মাঝামাঝি প্রকাশিত “You and your Blood type” গ্রন্থ প্রকাশিত।

    আপনার দেয়া লিঙ্ক এ তথ্য গুলো শেয়ার করেছেন পাপন ভাই। যেহেতু এগুলো আমার বা পাপন ভাই কাররই গবেষণা নয় তাই জেই প্রকাশ করুক না কেন তথ্য গুলো একি হবার কথা। যারা জানেনা তাদের জানানোটাই আসল উদ্দেশ্য। ধন্যবাদ আপনাকে।

Level 0

চালায়ে যান

অনেক সুন্দর টিউন হয়েছে।যত পড়ছি তত ভালো লাগছে।আশা করি নিয়মিত আমাদের তথ্যগুলো শেয়ার করবেন।

    @প্রবাসী,
    ধন্যবাদ প্রবাসী ভাই। সত্যি কথা বলতে আপনার মন্তব্বের জন্য আমি অপেক্ষা করি। খুবি অনুপ্রাণিত হই।

ব্লাড গ্রুপের বিষয়টাকি সত্যি ??
►“B+” এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা স্বাধীনচেতা, মেধাবী, নমনীয়, মনোযোগী, স্বাস্থ্যবান,সরল, দক্ষ, পরিকল্পনাবাদী, বাস্তববাদী,আবেগ প্রবণ এবং খুব বেশি রোমান্টিক হয়ে থাকে।
আমিতো মোটেও মেধাবী না, বাকি টা ঠিক আচে 🙂

    @অর্জন:
    এটা একটা গবেষণা থেকে উঠে এসেছে। যেহেত বিভিন্ন ব্লাড গ্রুপের মানুষের উপর গবেষণা করে বইটি লেখা হয়েছে তাই মনে হয় সত্য। আমিও তো আপনার মত নিশ্চিত নই। আমি জাস্ট আপনাদের গবেষণার ফলাফল টা জানিয়েছি মাত্র। জেহেত বলা হচ্ছে আপনি মেধাবি, আর বাকি ১১ টা আপনার সাথে মিলেছে তাই সম্ভবত আপনি আসলেই খুবি মেধাবি। এবার মেধার ব্যভার শুরু করুন।
    হা হা হা…
    ধন্যবাদ আপনাকে।

    ভাই, এই কথাটাই আমি চিন্তা করতে ছিলাম টিউনটা পড়ার পরে!!!

ভাই আপনার সব পর্ব গুলো হতে মানুষ অনেক কিছু শিখতে পারবে। জেনে খুশি হবেন আপনার পর্বগুলো আমার ডাইরিতে একে একে লিখতেছি হয়তবা একটা বই আকারে প্রকাশ করতে পারি। তবে অনুরোধ পর্বগুলো শেষ করবেন না চালিয়ে যান। আর ৬ষ্ঠ পর্বে আগের পুনারাবৃত্তি ঘটেছে। দয়াকরে একই জিনিস বারবার লিখবেন না নতুন কিছু লিখুন। কেউ যদি না থাকে আমাকে পাবেন আপনার পাশে।।

    @শহিদুল ইসলাম,
    শহিদুল ভাই, আপনার ভালো লাগছে জেনে খুশি হলাম। আর তথ্য পুনারাবৃত্তি সম্পর্কে যেটা বলেছেন সেটা পুরোপুরি অনিচ্ছাকৃত। কারন কোন পর্বে কি তথ্য দিয়েছি এতটা মনে রাখা সম্ভব হয়না। তাই যদি কোন তথ্যর পুনারাবৃত্তি ঘটে দয়া করে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। পাশে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

ব্লাড গ্রুপের অংশটুকু অনেক ভালো লাগলো। অনেক সুন্দর টিউন হয়েছে।যত পড়ছি তত ভালো লাগছে । আশা করি নিয়মিত আমাদের তথ্যগুলো শেয়ার করবেন।ধন্যবাদ আপনাকে।

    @sadd rahman,
    ভালো লাগলো আবারো আপনাকে পাশে পেয়ে। ধন্যবাদ সাদ ভাই।

@অর্জন,
এটা একটা গবেষণা থেকে উঠে এসেছে। যেহেত বিভিন্ন ব্লাড গ্রুপের মানুষের উপর গবেষণা করে বইটি লেখা হয়েছে তাই মনে হয় সত্য। আমিও তো আপনার মত নিশ্চিত নই। আমি জাস্ট আপনাদের গবেষণার ফলাফল টা জানিয়েছি মাত্র। জেহেত বলা হচ্ছে আপনি মেধাবি, আর বাকি ১১ টা আপনার সাথে মিলেছে তাই সম্ভবত আপনি আসলেই খুবি মেধাবি। এবার মেধার ব্যভার শুরু করুন।
হা হা হা…
ধন্যবাদ আপনাকে।

ব্লাড গ্রুপের অংশটুকু অনেক ভালো লাগলো…………তবে আমার ব্লাড গ্রুপের সাথে অনেক মিল আছে…বাকপটু এবং অত্যান্ত বুদ্ধিমান এ দুটি ছাড়া………ধন্যবাদ আপনাকে

তারমানে নেগেটিভ গ্রুপের রক্তধারীরা একটু নেগেটিভ মাইন্ডেড হয় !!!! যাই হোক, সুন্দর টিউন। অনেক ধন্যবাদ ।