SEO এর ব্যাসিক নিয়ে পরিপূর্ণভাবে আলোচনা করেছি

যথেষ্ট সময় ও শ্রম দিয়ে অনেক কষ্ট করে লিখেছি, পর্যাপ্ত মন্তব্য আশা করছি। আপনার যেকোনো মন্তব্য গ্রহন করা হবে।
প্রথমেই বলে রাখি, এই কন্টেন্ট টা সম্পূর্ণ বিগেনার ও মিড লেভেলদের জন্য, এক্সপার্টরা এড়িয়ে যেতে পারেন অথবা পড়তেও পারেন।
বর্তমানে পুরো বিশ্বে অনেক ধরনের পেশা রয়েছে তার মধ্যে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যতম একটি পেশা। তথ্য প্রযুক্তি যেমন প্রতিনিয়ত উন্নত হচ্ছে, অনেক মানুষ ইন্টারনেটে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে। যার ফলে প্রতিটা কোম্পানি ডিজিটাল এর সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে আর এইজন্নই কোম্পানি গুলোতে যথেষ্ট ডিজিটাল মার্কেটার প্রয়োজন হচ্ছে।

বর্তমান যুগ ডিজিটাল যুগ। আপনি পৃথিবীতে বাস করছেন ডিজিটাল প্রযুক্তির মাঝে। সেই হিসেবে আপনার ব্যবসায় সফলতা পেতে অবশ্যই ডিজিটাল মার্কেটিং সঠিকভাবে করতে হবে। আপনি ট্র্যাডিশনাল মার্কেটিং থেকে তুলনামুলকভাবে কম খরচে ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে যেকোনো পণ্যের প্রসার ও প্রচার করা যায়।

The Importance of digital marketing
আমরা বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট নিয়ে একটু ধারণা লাভ করি। বিশ্বে যেখানে বর্তমানে ৪০০ কোটির বেশি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে এবং তার মধ্যে ৩০০ কোটির বেশি মানুষ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকে।

সেখানে বাংলাদেশের ১৬ কোটি জনগনের প্রায় ৮ কোটিরও বেশী মানুষ এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। (সূত্র- btrc.gov.bd) সেই সাথে জনপ্রিয় যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৩ কোটি। যেখানে ২০১২ সালে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল মাত্র ৩১ হাজারের একটু বেশি (সূত্র- btrc.gov.bd)। আর সে সময়ে ফেসবুকের ব্যবহারকারী ছিল তো গুটি কিছু মানুষ।

এই পরিসংখ্যান থেকেই বোঝা যায় কেন দিন দিন ডিজিটাল মার্কেটিং এত জনপ্রিয় হচ্ছে।
তাছাড়াও ডিজিটাল মার্কেটিং এর গুরুত্ব অনেক, বর্তমানে মাঝারি ও বড় পর্যায়ের প্রায় সব ব্যবসাকে প্রমোট করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং করতে হয় এমনকি ছোট খাটো ব্যবসায় গুলোতেও ডিজিটাল মার্কেটার প্রয়োজন হচ্ছে।

আমরা সকালে উঠে প্রথমে কি করি, স্মার্টফোন হাতে নেই, গতকাল ফেইসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম, কতটা লাইক পরেছে, কতটা টিউমেন্ট পরেছে সেগুলো চেক করি, অথবা অন্য কেউ টিউন করলো কিনা, কি টিউন করেছে সেইটা দেখার চেষ্টা করি। অনেকেই আবার ঘুম থেকে উঠে অফিসের মেইল চেক করছি, ক্লায়েন্টের কোন মেইল আসছে কিনা দেখছি, ই-কমার্স বাজারে নতুন কোন পন্য আসছে কিনা খুঁজে দেখি, এইভাবে প্রায় সবাই ইন্টারনেটের সাথে জড়িয়ে যাচ্ছি। এতে করে এক পক্ষ্যকে কিন্ত সুযোগ করে দিচ্ছি, আর তারা হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটার। তারমানে বুঝতেই পারছেন, ডিজিটাল মার্কেটিং কতটা গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয়।

ডিজিটাল মার্কেটিং করার গুরুত্বপূর্ণ উপায় গুলো হচ্ছে
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাউজেশন (SEO)
সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং (SEM)
সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
ইনফ্লুয়েন্সার মার্কেটিং
কন্টেন্ট মার্কেটিং
কন্টেন্ট অটোমেশন
ডিজিটাল ডিসপ্লে বিজ্ঞাপণ
ভাইরাল মার্কেটিং
ইমেইল মার্কেটিং
ক্যাম্পেইন মার্কেটিং
অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং
ডাটা-ড্রাইভেন মার্কেটিং
ইন্টারেক্টিভ মার্কেটিং
ই-কমার্স মার্কেটিং
টার্গেটেড রিমার্কেটিং
এবং স্পন্সর মার্কেটিং স্ট্রেটেজি অন্যতম।
এছাড়াও রয়েছে অনেক মার্কেটিং স্ট্রেটেজি, সময়, ট্রেন্ড ও অবস্থা বুঝে মার্কেটিং এর বিভিন্ন কৌশল আপ্লাই করতে হয়, তাহলে বলা যায় ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক বড় একটা সেক্টর।
ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যতম একটি অংশ হচ্ছে এসইও
ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যতম একটি পার্ট হচ্ছে এসইও। এসইও কাজের চাহিদা রয়েছে অনেক। আজকে শুধু এসইও সম্পর্কে ব্যাসিক পরিপূর্ণভাবে ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো।

আচ্ছা ডিজিটাল মার্কেটিং এর সংজ্ঞাটা দিয়ে ফেলি তাহলে এসইও টা বুঝতে আরও সহজ হবে। শুধু মার্কেটিং বলতে আমরা কি বুঝি, যেকোনো পণ্য অথবা সেবা, বিজ্ঞাপণ বা প্রচারণা করে বিক্রয় করা।

ডিজিটাল মার্কেটিং বলতে, যেকোনো ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে, প্রধানত ইন্টারনেট এবং আরও অন্যান্য ডিজিটাল টুলস ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমে যেকোনো পণ্যের বা সেবার বিজ্ঞাপণ ও প্রচারণা করাকে বোঝায়।

অর্থাৎ, ডিজিটাল মার্কেটিং এর ধাপ যেমনঃ সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশান (এসইও), সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং (এসইএম), সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (এসএমএম), সোশ্যাল মিডিয়া অপ্টিমাইজেশান, ই-মেইল মার্কেটিং, কনটেন্ট মার্কেটিং, এফিলিয়েট মার্কেটিং, ই-কমার্স মার্কেটিং, ডিসপ্লে অ্যাডভারটাইজিং, টিভি অ্যাডভারটিজিং, মোবাইল এসএমএস এবং এমএমএস, কলব্যাক, এবং ইলেক্ট্রনিক্স বিলবোর্ডসহ আরও প্রযুক্তির মাধ্যমে সঠিক এবং নিখুঁত ভাবে যেকোনো পণ্য বা সেবা নির্দিষ্ট কোনো ক্রেতা বা ভোক্তার কাছে পৌঁছানোকেই ডিজিটাল মার্কেটিং বলে।

তাহলে এখন বুঝতেই পারছেন, ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক বড় একটা ডিপার্টমেন্ট, এটি হতে পারেন অনলাইনে অথবা অফলাইনে, তবে ডিজিটাল এবং ইলেকট্রনি মিডিয়ার মাধ্যমে হবে এবং বেশির ভাগ কাজ হবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে। বেশির ভাগ বলতে বুঝাচ্ছি ৯০% মার্কেটিং ইন্টারনেটে।
এখন কি বুঝলেন, এসইও টা আসলে কি? বলা যায় এসইও হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং এর অন্যতম, গুরুত্বপূর্ণ এবং বড় পার্ট বা উপায়। ডিজিটাল মার্কেটিং করতে গেলে প্রথমেই এসইও এর কথা সবার আগে আসে। তাহলে আমরা প্রথমে এসইও দিয়েই শুরু করবো। অর্থাৎ এসইও সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নেওয়া চেষ্টা করবো।
What is SEO?
এসইও এর ফুল এলাভোরেশন হচ্ছে –

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO – Search Engine Optimization)।
মূল বিষয় গুলো মাথায় রেখে অনেকেই অনেক ভাবে এসইও এর সংজ্ঞা দিয়ে থাকেন, সবগুলোই সঠিক। আমি এসইও এর সংজ্ঞা যেভাবে দিয়ে থাকি সবসময় -

এসইও হচ্ছে এমন কিছু পদ্ধতি, যে পদ্ধতি গুলো অবলম্বন করে সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইটকে প্রোমোট করা যায়।
যদি একটু গভীর ভাবে বলি – এসইও হল কিছু নিয়ম নীতি বা টেকনিক যার মাধ্যমে যেকোনো একটা ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের সার্চ ইঞ্জিন (যেমন- গুগল,
বিং ইয়াহু) থেকে বেশি পরিমানে ভিজিটর বা ট্রাফিক ফ্রিতে নিয়ে আসা।

এক কথায়, যদি আমরা আমাদের ওয়েবসাইট গুলোতে ট্রাফিক আনতে চাই, তাহলেই এসইও করা দরকার। একটা ওয়েবসাইট কে যদি সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে প্রথম পেইজ এবং প্রথম পজিশনে নিয়ে আসতে পারি, তাহলে ফ্রিতে অনেক ট্রাফিক পাওয়ার সম্ভবনা থাকে। যদি প্রথম পেইজে ও প্রথম পজিশনে আনতে চাই, তাহলেই ওয়েবসাইটকে সঠিকভাবে এসইও করা প্রয়োজন।

খুব সহজ ভাষায় বলছি, আপনার ওয়েবসাইটে ফ্রিতে ভিজিটর নিয়ে আসতে চাইলে এসইও করতে হবে।
এসইও সম্পর্কে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত জানতে হলে, ধারাবাহিকভাবে পড়ে যেতে হবে এবং সাথে সাথে অনুশীলন ও গুগলে রির্সাচ করতে হবে। কিছু কিছু টেকনিক্যাল ব্যাপার খুব ভালোভাবে মনে রাখতে হবে।

এসইও সম্পর্কে এই সিরিজে বিস্তারিত জানতে পারবেন, আমি যতটুকু জানি ঠিক ততটুকু জানাবো। তারজন্য আপনাকে ধাপে ধাপে পড়ে যেতে হবে।
আচ্ছা যাইহোক, আশাকরি কিছুটা ধারণা পেয়েছেন, এসইও টা কি? আরেকটু সহজ করার চেষ্টা করছি, আমরা গুগলে হাজার হাজার ওয়েবসাইট দেখতে পায়, আপনি যখন কোন একটা কী ওয়ার্ড (ছোট করে বলি, কী ওয়ার্ড হচ্ছে গুগলে বা ইউটিউবে যা লিখে সার্চ দেয় সেই গুলোই এক একটা কী ওয়ার্ড) কী ওয়ার্ড দ্বারা গুগলে সার্চ করবেন, তখন কিন্ত গুগলের প্রথম পেইজে ১০টা ওয়েবসাইট দেখায়, নিচে দেখবেন ২য়, ৩য়, ৪র্থ এইরকম অনেক পেইজে ১০টা ১০টা প্রচুর ওয়েবসাইট রয়েছে। কিন্ত আপনি যখন কোন কিছু গুগল থেকে খুঁজে বের করতে যাবেন তখন তো সব ওয়েবসাইটে যাবেন না, তাই না। শুধু প্রথম পেইজে থাকা ১, ২, ৩ নাম্বার এর মধ্যে যেকোনো একটা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করছেন, আপনার কাঙ্খিত তথ্য পাওয়া জন্য।

এই সম্পর্কিত আরো তথ্য পেতে আমার ফেসবুক গ্রুপটি ভিজিট করুন : ড্রিমার

Level 0

আমি মাসুদ সরকার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 6 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস