ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

♥ আমার শত’তম টিউন উৎস্বর্গ করছি টেকটিউনস এর সকল টিউনার এবং ভিজিটরকে ♥ অনলাইনে আয় ও বর্তমান বাস্তবতা – মুখ থুবড়ে পড়ছে সকল স্বপ্ন – সঠিক পথ কি নেই ?

সবাইকে আমার সালাম । সবাই মনে হয় ভালই আছে আমিও ভালই আছি । আজ আমি আমার শততম টিউন করতে যাচ্ছি । এজন্য আমি একটু এক্সাইটেড ।প্রথমে আমার সম্পূর্ন পরিচয় দিয়ে শুরু করি ।

ADs by Techtunes ADs

আমার কে ?

আমি ফাহিম রেজা (বাঁধন) । ১৯৯০ সালে নীলফামারীর ডোমার থানার গোমনাতী গ্রাম এ আমার জন্ম । ২০০৭ সালে গোমনাতী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি পাস করি । আমরা চার ভাই , তাদের মধ্যে আমি বড় । ২০০৭ আমি পড়াশুনার জন্য ঢাকা আসি তবে ঢাকা সাথে আমার সম্পর্ক ছিলো জন্ম ছয় মাস থেকে । আমি প্রতি বছর একবার হলেও ঢাকা আসতাম। বর্তমানে সাইক ইন্সটিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড টেকনোলজি (SIMT) থেকে ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছি  । ছোট বেলা থেকে কম্পিউটার এর প্রতি আমার একটু বেশি ঝোক ছিল । আর এখন কম্পিউটার ছাড়া কিছু কল্পনা করতে পারি না । আমার ভবিষৎ পরিকল্পনা ডুয়েট থেকে EEE তে বি.এস.সি (জানি না চান্স পাবো কি না)করা এবং দেশের বাহিরে যাওয়া ।

টেকটিউনস এর সন্ধন কথায় পেলাম এবং এ থেকে আমি কি পেলাম এবং কিছু কথা

আমি টেকটিউনস এর সন্ধন পাই একটু অন্য ভাবে , অবশ্য এর জন্য ধন্যবাদ প্রাপ্ত শাকিল আরেফিন ভাই এর । একদিন পেপারে তার সাইট এর এ্যাড দেখে তার সাইট এ প্রবেশ করি এবং সে খান থেকে পাই আমার প্রথম ভালবাসা টেকটিউনস কে। সত্যি কথা আমি এখন টেকটিউনস এর প্রেমে পরে গেছে । অনেক কয় বার রাগ করে টিউন করা শেরে দিতে চেয়েছি কিন্তু পারিনি।

আমি টেকটিউনস এর সাথে আছি প্রায় দুই বছর থেকে , টিউন করা শুরু করি ২ সেপ্টেম্বর , ২০০৯ থেকে । আগে সাধারন ভিজিটর ছিলাম মাত্র । যাই হোক আমার টেকটিউনস এর সাথে অনেক দিনের সম্পর্ক । কিভাবে একশত টিউন করলাম বুঝলাম না। আসলে আমি মনে হয় টেকটিউনস এর সবচেয়ে অনিয়মিত টিউনার । আসলে অনিয়মিত হয়ার কারন ও আছে , এখন পড়াশুনা করছি । ভার্সিটি ত আর বন্ধ থাকে না । ক্লাস করতে হয় সকাল ৭.৩০ থেকে দুপুর ২ টা পযন্ত । এখন বলুন এই বিরতিহীব ক্লাশ করে আছে , আর কি লিখতে ইচ্ছা করে । আর আমি টিউটোরিয়াল লিখতে বেশি ভালবাসি , আপনার হয় ত জানেন যে টিউটোরিয়াল লেখা কত কষ্ট কর , কারন নিজের কনসেফট ক্লিয়ার করে তার পর টিউটোরিয়াল লিখতে হয় যাতে ভিজিটর এর যেকোন প্রশ্নের উত্তর দেওয়া যায় । যাই হোক তারপর শততম টিউন করতে পেরেছি এজন্য আমি খুবেই এক্সাইটেড ।

আমি টেকটিউনস এর কাছ থেকে কি পেলাম এই রকম কেউ প্রশ্ন করলে ? আমি উত্তর দেই , টেকটিউনস থেকে আমি আমাকে খুজে পেয়েছি এই , আমি ফাহিম রেজা (বাঁধন) একজন গ্রাম এর ছেলে , তারপর আমি যে অনলাইনে কিছু করতে পারবো , তার সম্পর্কে আমারকে উপল্বধি করতে বাধ্য করেছে এই টেকটিউনস ।আজ এই টেকটিউনস এর জন্য আমাকে অনেকে মোবাইল করে আমার ভাল মন্দ এর খবর নেয় এটা কি কম পাওয়া। আজ আমি টেকটিউনস এর জন্য অনলাইন জগৎ নিজের একটু জায়গা করে নিতে পেরেছি । আজ টেকটিউনস এর জন্য আমি বানাতে পেরেছি বিডি টিউটোরিয়াল ২৪ ব্লগ বানাতে পেরেছি । শুধু তাই না এই টেকটিউনস এর মাধ্যমে এমন কিছু মানুষের সাথে পরিচয় হতে পেরেছি যাদের তুলনা তারা নিজেই , যেমন প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক  মেহেদী হাসান আরিফ ভাই , সহ-প্রতিষ্ঠাতা মো. শাহজালাল ভাই , চিফ মডারেটর সোহান রাহাত (টিনটিন) ভাই এছাড়া টেকটিউনস এর সাথে প্রথম দিক থেকে আছে শাকিল আরেফিন ভাই , সাম্য ভাই । এখানে আমি মেহেদী হাসান আরিফ ভাইকে ১০০০০ ধন্যবাদ দিলেও মনে হয় কম হয়ে যাবে , কারন তিনি যে প্লাটফর্ম টা আমাদের জন্য তৈরি করেছে তার জন্য এর চেয়েও বেশী কিছু প্রাপ্ত । মো. শাহজালাল ভাই ভাইকে ধন্যবাদ যিনি নিজের পকেটের টাকা খরজ করে লাভহীন এই ব্লগ/ প্লাটফর্ম টা সাধারন পাঠক দের জন্য টিকিয়ে রেখেছে । সাথে টিনটিন ভাইকে অনেক ধন্যবাদ , যিনি অনেক শ্রম দিয়েছে । আর শাকিল আরেফিন ভাই এবং সাম্য ভাই , কে অসংখ্য ধন্যবাদ । এবং সাথে ধন্যবাদ টেকটিউনস এর সকল টপ টিউনার কে যারা এই প্লাটফর্ম কে আর মজবুত করছে । সাথে ধন্যবাদ আমার টিউনর এর পাঠক ও মন্তব্যকারিদের এবং ধন্যবাদ টেকটিউনস এর সকল টিউনার এবং ভিজিটরকে ।

...........................................................................................................................................

এত খন আমার বক বক শুনার জন্য ধন্যবাদ । এবার আছি আজকের টিউন প্রসঙ্গে ।

...........................................................................................................................................

আমার আজ কের লেখার বিষয় অনলাইনে আয় ও বর্তমান বাস্তবতা । অনেক বড় বড় টিউনার এখানে অনলাইনে আয় লিখছে , তাদের কাছে আমার অবিজ্ঞতা নগন্য , তারপর তাদের সম্মান প্রদশন করে আমার এই টিউন করা সাহস নিলাম । কোন ভুল হয়ে থাকলে ক্ষমা করবেন।

আজ পেপার , ম্যাগাজিন , বিভিন্ন ব্লগ বা ওয়েব সাইটে , বিভিন্ন দেওয়াল ও লিফলেট দেখি ঘরে বসে হাজার হাজার ডলার অনলাইনে ইনকাম করার বিজ্ঞাপন। এই ধরনের বিজ্ঞাপন দিয়ে একটি প্রতারক চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা । তাদের লাগ হচ্ছে , আপনি কি পাচ্ছেন । আপনি বলুন এটা এত সহজেই যদি হত তবে মানুষ এত কষ্ট করে ডাক্তার , ইঞ্জিনিয়ার হচ্ছে কেন ? একটা কম্পিউটার ও একটি ইন্টারনেট নিয়ে ত বসে পড়া যেতে । হ্যা আমি বলছি না অনলাইনে আয় সম্পূর্ন ভুয়া । তবে এরকম অনেক প্রতিষ্টান আছে যারা সম্পূর্ন ভুয়া । হাজার হাজার টাকা নিয়ে আপনাকে দু-চার দিনের কিছু ভুয়া ক্লাস নিয়ে ফুরুত । আমি আজ আপনাদের অনলাইনে আয় কিছু পথ নিয়ে আলোচনা করবো , কী আপনার যোগ্য লাগবে টা নিয়ে আলোচনা করবো। পথ গুলো সহজ না হলে অনেক নির্ভর যোগ্য ।

ADs by Techtunes ADs


অনলাইনে আয় কিছু নির্ভর যোগ্য পথ

আমি এখানে কিছু নির্ভর যোগ্য পথ নিয়ে আলোচনা করবো যা হয়ত বা আপনাদের কিছু কাজে আসবে । অনলাইনে আয় অনেক মাধ্যম আছে তবে আপনাকে জানতে হবে কোন টা আপনার জন্য উপযোগী বা আপনি কোন টার জন্য যোগ্য । অনলাইন আয় এর কিছু নির্ভর যোগ্য পথ এর নাম ও বিস্তারিত বর্ননা নিম্নে দেয়া হল ।
অনলাইনে আয় কিছু নির্ভর যোগ্য পথ সমূহ

  1. এ্যাডসেন্স প্রোগ্রাম [পিপিসি বা পে পার ক্লিক]
  2. ফ্রিল্যান্সিং ইত্যাদি ।

এ্যাডসেন্স প্রোগ্রাম [পিপিসি বা পে পার ক্লিক]

পিপিসি বা পে পার ক্লিক হল বিজ্ঞাপন দাতা ও বিজ্ঞাপন প্রদর্শক এর মধ্যে যোগ সুত্র স্থাপন করে । আর এদের মধ্যে পক্ষ হয়ে কাজ করে পিপিসি বা এ্যাডসেন্স প্রোগ্রাম । এদের মধ্যে অনেক জনপ্রিয় ও নির্ভর যোগ্য কিছু হচ্ছে গুগল এ্যাডসেন্স , বিডভারটাইজার ইত্যাদি ।

গুগল এডসেন্স এবং বিডভারটাইজার কিভাবে কাজ করে

আপনারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ওয়েব সাইট এ ভিজিট করেন , সে সময় দেখবেন বিভিন্ন পিকচার এ্যাড বা টেক্সলিঙ্ক এ্যাড থাকে এবং তার নিচে লেখা থাকে এ্যাড বাই গুগল । আপনি বা অন্য কোন ভিজিটর ঐ  পিকচার এ্যাড বা টেক্সলিঙ্ক এ্যাড ক্লিক করলে সাইট এর মালিক তার গুগল এডসেন্স একাউন্টে নিদির্ষ্ট পরিমান ডলার জমা হয়ে যায় । আপনার একাউন্ট এ এক এডসেন্স ১০০ ডলার জমা হলে আপনি টাকা আনতে পারবেন । আর এটা চেক আর মাধ্যমে আনতে পারবে এবং যে কোন ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে পারবেন। এডসেন্স প্রোগ্রাম গুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভাল মাধ্যম হচ্ছে গুগল এডসেন্স । এদের পেমেন্ট ব্যবস্থাও অনেক ভাল এদের নামে এখন পযন্ত কোন খারাপ রিপোর্ট বেড় হয় নি । আসলে এটা সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল এর একটি প্রোগ্রাম । তাই খারাপ হয়ার কোন সুযোগ নেই । আমি এ পযন্ত ৩ বার গুগল এডসেন্স থেক টাকা পেয়েছ। নিচে আমার চেক এর একটা স্কিন শর্ট দিলাম ।


বিডভারটাইজার ও গুগল এডসেন্স এর মত একটা  এডসেন্স বা একটা পিপিসি বা পে পার ক্লিক প্রোগ্রাম । তবে এটা গুগল এডসেন্স একটু বেশি সুবিধা পাবেন , যেমন আপনি আপরান প্রতি ক্লিক এ একটু বেশী আয় হবে , মাত্র ১০ ডলারে প্যাপাল এর মাধ্যমে [বাংলাদেশ এ প্যাপাল সাপোর্ট করে না] , তবে ৫০ ডলার হলে গুগল এডসেন্স এর মত চেক আর মাধ্যমে আনতে পারবে যে কোন ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে পারবেন।

গুগল এডসেন্স এবং বিডভারটাইজার থেকে আয় করার যোগ্যতা

বিডভারটাইজার ও গুগল এডসেন্স আয় করতে হলে আপনা থাকতে হবে নিজের একটা ওয়েব সাইট বা ব্লগ । এবং শুধু ওয়েব সাইট বা ব্লগ থাকলে যে সব হয়ে হয়ে গেল তা না , আপনার ওয়েব সাইট প্রচুর ভিজিটর থাকতে হবে । মিনিমাম প্রতিদিন ৭০০- ৮০০ ভিজিটর থেকে এর উপরে , তাছাড়া ভাল আয় করা সম্ভব না । এখন আপনার ওয়েব সাইট / ব্লগ যাই থাক আপনাকে প্রতিদিন মিনিমাম প্রতিদিন ৭০০- ৮০০ ভিজিটর রাখতে হবে । ওয়েব সাইট বা ব্লগ থাকুক না কে আপনাকে অনেক ভাল ইংলিশ ভাল হতে হবে , কারন বিডভারটাইজার ও গুগল এডসেন্স বাংলা সাইট এ সাপোর্ট করে না তাই আপনার ব্লগ বা ওয়েব সাইট হবে সম্পুর্ন ইংলিশে । আপনাকে ওয়েব প্রোগ্রামিং [সিএসএস , পিএইচপি , এইচটিএমএল] সম্পর্কে ভাল ধারনা থাকতে হবে যাতে আপনি আপনার সাইট বা ব্লগ কে ভাল ভাবে নিয়ন্ত্রন করতে পারেন । ব্লগে লেখার হাত ভাল হতে হবে । আপনার লেখার হাত যদি ভাল না হয় তবে আপনি অনলাইনে থেকে আয় করা সম্ভব হবে । ভাল মানের লেখা লিখতে হবে , এবং লেখা অবশ্যই ইউনিক হতে হবে , কোন জায়গা থেকে কপি পেস্ট করে কিছু করতে পারবেন না । [এনিয়ে আমার পরের লেখাগুলোতে বিস্তারিত লিখবো]

ফ্রিল্যান্সিং পেশা

আমাদের দেশে অনলাইন ভুবনের তরুণদের কাছে বহুল আলোচিত বিষয়ের একটি হচ্ছে অনলাইন আউটসোর্সিং ফ্রিল্যান্সিং । ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্যকে পুরোপুরি বদলে দিতে সক্ষম হয়েছেন অনেকেই ৷পড়ালেখার পাশাপাশি বা পড়ালেখা শেষে ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং করে যে কেউ গড়ে নিতে পারেন আপনার নিজের ভবিষ্যত্ ক্যারিয়ার ।

ADs by Techtunes ADs

যদিও আমাদের দেশে এখনও এ বিষয়টি অনেক এগিয়ে । এরই মধ্যে অনেকে ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্যকে সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছেন। পড়ালেখা শেষে বা পড়ালেখার সাথে সাথে ফ্রিল্যান্সিং করে গড়ে নিতে পারেন আপনার ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার। উন্নত দেশগুলো কাজের মূল্য কমানোর জন্য আউটসোর্সিং করে থাকে এবং তারা ভারত , পাকিস্থান এবং বাংলাদেশ কে বেশি কাজ দিতে চায় কারন তারা কম মুল্য কাজ় গূলো করিয়ে নিতে পারে। তবে আমাদের চেয়ে ভারত এবং পাকিস্তান সেই সুযোগ টিকে খুবই ভালভাবে কাজে লাগিয়েছে।

চাকুরীর বাইরে নিজের ইচ্ছামত কাজ করার স্বাধীনতা হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং। এখানে আপনি প্রতি মূহুর্তে নতুন নতুন কাজ পাবেন । বর্তমান DoNanza [ফ্রিল্যান্স কাজের একটি সার্চ ইঞ্জিন] এ সমীক্ষায় প্রথম বিশটি ফ্রিল্যান্স কাজ হল  পিএইচপি , এক ভাষা থেকে অন্য ভাষায় অনুবাদ , এইচটিএমএল , গ্রাফিক ডিজাইন ,ওয়েব ডিজাইন , এসইও , ওয়ার্ডপ্রেস ,মাইএসকিউএল ,ফটোশপ , সিএসএস , ফ্লাশ , জাভা , স্ক্রিপ্ট , আর্টিকেল লেখা , ডেটা এন্ট্রি , ইন্টারনেট মার্কেটিং , লোগো ডিজাইন , জুমলা , কপিরাইটিং , এজাক্স , ফেসবুক এপ্লিকেশন । আর বিস্তারিত দেখুন এখানে

ইন্টারনেটে অনেকগুলো জনপ্রিয় ওয়েবসাইট রয়েছে যারা ফ্রিল্যান্সিং সার্ভিস দেয় যাদেরকে বলা হয় ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস দের মধ্যে , GetaFreelancer , Odesk ,‌ Scriptlance ,Getacoder , Rentacoder জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট । এগুলো থেকে যেকোন একটিতে রেজিস্ট্রিশন করে আপনি শুরু করতে পারেন আপনার ভবিষ্যত্ ক্যারিয়ার । এসব ওয়েবসাইটে যারা কাজ জমা দেয় তাদেরকে বলা হয় Buyer এবং যারা এই কাজগুলো পায় এবং সম্পন্ন করে তাদেরকে বলা হয় Provider অর্থাৎ আপনাকে Provider হিসাবে কাজ করতে হবে  । [এনিয়ে আমার পরের লেখাগুলোতে বিস্তারিত লিখবো]

ফ্রিল্যান্সিং থেকে আয় করার যোগ্যতা

আপনি যদি এক জন্য প্রফোশনাল ফ্রিল্যান্সার হতে চান তবে পড়াশুনু শেষ করে আসা উচিত । কারন এক সংগে দুই নৌকায় পা দিলে ফলাফল কি হবে আপনি জানেন । আপনাকে এওকজন প্রফোশনাল ফ্রিল্যান্সার হতে গেলে অবশ্যই ইংলিশ এ ভাল হতে হবে । এরপর পিএইচপি  , এইচটিএমএল , গ্রাফিক ডিজাইন , ওয়েব ডিজাইন , এসইও , ওয়ার্ডপ্রেস ,মাইএসকিউএল ,ফটোশপ , সিএসএস , ফ্লাশ , জাভা , স্ক্রিপ্ট , আর্টিকেল লেখা , ডেটা এন্ট্রি , ইন্টারনেট মার্কেটিং , লোগো ডিজাইন , জুমলা , কপিরাইটিং , এজাক্স , ফেসবুক এপ্লিকেশন  এই কাজ গুলু ভাল ভাবে রপ্ত করতে হবে । এক কথা এক জন্য প্রফোশনাল ফ্রিল্যান্সার হতে যা লাগে তা আপনাকে জানতে হবে এবং সম্পূর্ন প্রস্তুতি নিয়ে আপনাকে এই লাইন এ নামতে হবে ।

বর্তমান বাস্তবতা

আপনি এ্যাডসেন্স প্রোগ্রাম বা ফ্রিল্যান্সিং অনলাইনে ভাল আয় কততে চান তবে আপনাকে অবশ্যই আপনার যোগ্যতা থাকতে হবে । আপনাকে যোগ্যতা ছাড়া কেউ কাজ দিবে না । পেপার , ম্যাগাজিন , বিভিন্ন ব্লগ বা ওয়েব সাইটে , বিভিন্ন দেওয়াল ও লিফলেট দেখি বিভিন্ন ভুয়া কোর্স করে স্বপ্ন দেখবেন আমি এই টাকা এই করবো সেই করবো। কিন্তু ১৫-৩০ দিন পর যখন ফেল মারবেন তখন মুখ থুবরে পরবে সকল স্বপ্ন । তাই স্বপ্ন দেখার আগে ভেবে নিন আপনি এই কাজের জন্য যোগ্য কি না । আগে নিজেকে যোগ্য করে গরে তুলুন । এই সব ভুয়া বিজ্ঞাপন না দেখে কোন ভাল প্রতিষ্টান থেকে ইংলিশ শিখুন , বাংলাদেশ অসংখ্য ভাল প্রতিষ্টান আছে যারা প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়ে , গ্রাফিক ডিজাইন , লোগো ডিজাইন ইত্যাদি জিনিস শেখায় সেখান হতে এই কোর্স গুলো করুন । যা শিখছেন ভাল ভাবে চর্চা করুন । এগুলোর পেছনে লেগে থাকুন , দেখবেন আপনাকে কাজ খুজতে হবে না কাজ আপনাকে খুজে নিবে । আর আপনি যদি এই গুলো করতে না পারেন তবে আমার সাজেন্সন হবে আপনি এই লাইন থেকে সরে জান কারন এই যোগ্যতা ছাড়া আপনি এই লাইন এ কিছু করতে পারবেন । অঝথা সময় নস্ট করে লাভ কি , এর চেয়ে আপনি আপনার পড়ালেখায় মনোনিবেশ করুন দেখবেন সেখানেই আপনি অনেক ভাল কিছু করে ফেলেছেন ।

তথ্য সুত্র বিডি টিউটোরিয়াল২৪ ব্লগ

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি ফাহিম রেজা বাঁধন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 116 টি টিউন ও 1434 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Domain, Hosting, WebDesign, Logo Design, SEO: http://w3solutionsbd.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমি বিশেষ করে অনলাইন আয়ের উপরে কোন টিউন হইলে কমেন্ট করিনা পড়িওনা কারন আমার এই বিষয়ে বিন্দু মাত্র আগ্রহ নাই।
কিন্তু তোমার শততম টিউনে কমেন্ট না করে পারলাম না,
আমি মাঝে মাঝে আশ্চর্য হয়ে দেখি তুমি এত সুন্দর টিউন কর কি করে এবং কত পরিশ্রম করে।
এত সুন্দর ভাবে তুমি টিউনটি উপস্থাপনা কর যে না দেখে কোন উপায় থাকেনা।
তোমার শততম টিউনে তোমাকে অনেক অনেক অভিনন্দন এবং শুভ কামনা।
তোমার আগামীর পথ চলা হোক সুন্দর ও মসৃন,থাকব তোমার সাথে।
আশা ও বিশ্বাস তুমি সামনেও টেকটিউন্সকে আরো সমৃদ্ধ করবে তোমার সুন্দর সুন্দর টিউন দিয়ে।
ধন্যবাদ ভাল থেক।

    আমি মাঝে মাঝে আশ্চর্য হয়ে যাই আপনার মন্তব্য দেখে । আপনি এত সুন্দর করে মন্তব্য করেন যে টিউনার কি বলবে ভেবে পায় না । ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।

Level 0

শততম টিউন এর জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।ভালো থাকুন আরও সুন্দর হউক আপনার জীবন দোয়া রইলো ।

দোয়া করি,আজকে যেন বাংলাদেশ এর একজন 100 করে।তাহলে,আমরা ফাহিম ভাই এর 100 +বাংলাদেশ এর একজনের 100.একসাথে দুই সেঞ্ছুরি।আমাদেরকে একটা কথা দিতে হবে যে কখনও techtunes ছেড়ে যাওয়া চলবে না…………………………………………………………

    ধন্যবাদ সাবিহা ভাই । আর বাংলাদেশ সেঞ্ছুরি হা হা হারতেছে নাকি এটাই দেখুন । আর আমি ত্ম গাল্ডফ্রেন্ড কে কি কেউ ছাড়তে বা ভুলতে পারে আপনি বলুন ।

অভিনন্দন ফাহিম তোমাকে।

ফাহিম ভাই ১০০তম টিউনের শুভেচ্ছা!
আর এত টাকা ইনকাম করছেন মিষ্টি কই?
অসীম ধন্যবাদ।

১০০ তম টিউনে ১০০ কোটি শুভেচ্ছা ।

ভালো থাকবেন ।

অনেক অনেক শুভকামনা ফাহিম। আশা করি শীঘ্রই তুমি ১০০০!!! টিউন করবে। ভাই একটা কথা বলি, আতাউর ভাই কেন এমনটা বললেন বুঝলাম না। কিন্তু আমার কথাটি বলতে হচ্ছে এই কারনে যে তুমি বললে যে, [এনিয়ে আমার পরের লেখাগুলোতে বিস্তারিত লিখবো] আসলে ফ্রিলান্সিং এতা সহজ বিষয় নয়। এখানে অনেক ত্যাগ ও শেখার জিনিস আছে। হুটহাট করে কোনকিছুতেই সাফল্য আসে না। এটা সবাই জানার পরেও ভুর করে অনেকেই। আমরা যারা জানি তারাও সহজে ব্যপারগুলো অন্যের সাথে শেয়ার করি না। তাই নতুনরা হতাশ হয়ে ফিরে যায় মানে ঐযে বললে- “পেপার , ম্যাগাজিন , বিভিন্ন ব্লগ বা ওয়েব সাইটে , বিভিন্ন দেওয়াল ও লিফলেট দেখি বিভিন্ন ভুয়া কোর্স করে স্বপ্ন দেখবেন আমি এই টাকা এই করবো সেই করবো। কিন্তু ১৫-৩০ দিন পর যখন ফেল মারবেন তখন মুখ থুবরে পরবে সকল স্বপ্ন ।” আসলে যতার্থই বলেছো। কিছু অসাধু চক্র বাংরাদেশের বুকে করঙ্ক দেয়ার চেষ্টা সবসময় করে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা কি পারি না এর মোকাবেলা করতে? মোকাবেলা এই অর্থে যে, আমরা যে কাজটিই করিনা কেন, সঠিক পত যেনেই করবো। তাহলে যে যাই করুক বা বলুক। আসলে আসল কথায় আসি… অনেক টিন্তা করলাম কয়েকদিন… আমি ফ্রিলান্সিং করি… যা জানি যদি তা সকলের মাঝে ফ্রি বিলায় দেই। তাতে আমার কোন অসুবিধা নেই। বরং আমার জ্ঞান আরো বাড়বে অন্যকে শিখাতে যেয়ে। এই লক্ষে আমি আমার ব্যক্তিগত ফ্যান পেজে লিকা শুরু করছি বাংলায়, যা শিখাবো বা শিখবো সব হবে মাতৃ ভাষায়। যানি না আমার এই কাজের সাথে কে কে একমত হবে। কিন্তু আমি মনস্থির করেছি, আমার জ্ঞানকে সবার মাঝে বিলাবো। কেউ কি আসবেন আমার পেজ এ। এটা আমার ব্যক্তিগত কোন লাভের আশায় না আল্লাহ’র কসম করে বললাম। কারন আমি যে হারে নতুনদেরকে পথ হারাতে দেখতেছি। তাতে, হয়তো আমাদের ২০২১ সালের স্বপ্নটা অপূর্ণই থেকে যাবে।

শিখতে বা জানতে কোন লজ্জা নাই আমার। আমি সবসময় তোমাদের সবাই পাশে থাকতে চাই। কারন কারন সবাইকে দিয়ে সবকিছু হয়না। আর কিচু করতে হরে বা কোন কিছুর অর্জনের জন্য ডাক দিতে হবে একজনকেই। জানিনা সেই দ্বায়িত্বটি আমার কাধেই কিনা। যদি তাই হয় তবে আমি প্রস্তুত আমাদের বেকারত্বের বিদায় ঘন্টা বাজাতে।

আসলে অনেক কথা হয়ে গেল। কথা গুলো অনেকটা বাধ্য হয়েই বললাম। জানিনা আপনাদের সবার কতটুকু সমর্থন পাবে। যদি দেখি আপনারা আছিন আমার সাথে। তাহরে আমি আমার সব জ্ঞানকে দিয়ে দিতে রাজি আছি। তাই আপনাদের সব সমস্যার কতা বলুন আমার ফেসবুত ফ্যান পেজে http://www.facebook.com/BloggerShaon । আসুন — বলুন– । আর আমিতো আছি সেই বেকারত্বের বিদায় ঘন্টার ঝান্ডা হাতে নিয়া… শুধু অপেক্ষায় আছি আপনাদের সাথে নিয়ে কখন বলতে পারবো। আসলেই আমরা মেতে উঠতে পেরেছি প্রযুক্তির সুরে।

    শাওন ভাই আমি কি বলেছি বলেনতো,ঠিক বুঝলাম না।

    আতাউর ভাই, আমি জানতাম আপনি আমাকে প্রশ্ন করবেন। আরে ভাই আপনি বললেন না যে , “আমি বিশেষ করে অনলাইন আয়ের উপরে কোন টিউন হইলে কমেন্ট করিনা পড়িওনা কারন আমার এই বিষয়ে বিন্দু মাত্র আগ্রহ নাই।” শুধু এতটুকুই যে আপনার এই বিষয়ে কোন আগ্রহ নাই। আর কিছু না ভাই। আমি নেগেটিভলি না পজেটিভলি ব্যপারটি শুধু বলেছি। দয়া করে আমাকে বুল বুঝবেন না। 🙂

    শাওন ভাই রাগ হচ্ছেন কেন , সবার কাছে সব কাজ ভাল না লাগতেই পারে। যাই হোক আপনার প্রচেস্টাকে সাগত জানাই । আমিও আপনাদের সাথে আছি , থাকবো।

    আহারে ফাহিম ভুল বুঝরা কেন। আমিতো রাগ হই নাই। আতাউর ভাই প্লিজ আমি রাগ করি নাই ভাই। 🙂 🙂
    হেহেহেহেহে 🙂

    আরে ভাই এখানে রাগারাগির কিছু নাই,জিনিসটা আমার কাছে অস্পষ্ট ছিল তাই জেনে নিলাম এর চেয়ে বেশী কিছু না।

    ধন্যবাদ ভাই। মনটা এখন শান্তি পাইলো। আসলে আমার কাছে একটি ভাল সম্পর্কের মূল্য অনেক বেশি। তাই বুল বুঝেই তা নষ্ট করতে চাই না। ধন্যবাদ ভাই। ভাল থাকবেন। 🙂

ধন্যবাদ ভাইয়া শততম টিউন করার জন্য।

শততম টিউন এর জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ । চালিয়ে যান

অনেক অনেক ধন্যবাদ ভাই।

Level 0

প্রথমেই ফাহিম ভাইকে অভিনন্দন জানাই সেঞ্চুরী পুরন করার জন্য।
ফাহিম ভাই খুবই কাজের কথা বলছেন। আসলে দক্ষাতার কোন বিকল্প নেই। যা আমি হারে হারে টের পাচ্ছি।
ওডেস্কে আমার প্রোফাইল ১০০% করে রাখছি অনেকদিন আগে।
আমি যাদের ওডেস্কে প্রোফাইল তৈরী করে দিয়েছি তারা এখন ঘন্টায় ১০ ডলারের কাজ করে শুধু তারা প্রোগ্রামিং জানে বলে। আর আমার ১০ ডলার ইনকাম করতে সারা দিন লেগে যায়।
তবে আমিও কোডং শিখতেছি। দেখা যাক কি হয়।
তবে আমার জনা মতে যারা অনলাইন আউট সোর্সিংয়ে সফল হয়েছেন তারা বাংলা ব্লগিংয়ে খুব কম সময় দেয়। আমার দেখা বেশ কয়েক জন আছে তারা মাসে পঞ্চাশ হাজারের উপরে ইনকাম করে কিন্তু তারা বাংলা ব্লগ সাইটের নামও জানে না।
তারা যদি তাদের কিছুটা অভিজ্ঞতা শেয়ার করত তাহলে আমারা যারা নতুন তাদের খুব উপকারে আসতো।
আশা করি আপনিও সফল হলে আবার হারিয়ে যাবেন না।
ধন্যবাদ।

    হুম এটাই বাস্তবতা । কিন্তু পাবলিক ত এই জিনিস গুলোই বুঝে না , তারা দেখছে অমুখ ভাই অনলাইন থেকে আয় করছে আমিও করবো। আর এর ফাকে ফায়দা লুটে নিচ্ছে এক জাতে সুবিধা বাদী লোক ।

ভালোবাসায়, ভালো আশায়, ভালোতে থাকিও
ভালোকে বিলিয়ে ভালোতে রাখিও।

আপনার ১০০তম টিউনসে আপনাকে অনেক অনেক অভিনন্দন,

অসীম ধন্যবাদ

ভাল লিখছেন, তবে ভাই সাড়া জীবনের জন্য বিদেশে যাইয়েন না

ধন্যবাদ

(✿◠‿◠) অভিনন্দন… ভালো থাকুন আর বেশী টিউন করেন 🙂

Level 0

ফাহিম রেজা বাঁধন ভাই,আপনাকে তেমন একটা টিউন করা হয় না,তবু ১০০ টিউনতম টিউনের জন্য ধন্যবাদ…………।

শততম টিউনে শত লাল গোলাপ শুভেচ্ছা।ধন্যবাদ ফাহিম ভাই।

আপনাকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা। আশা করি খুব তাড়াতাড়িই ২ সেঞ্চুরি করবেন।
তবে আপনার এই ১০০তম টিউন দেখে আমার খুবই ইচ্ছা হচ্ছে “কবে আমিও আপনার মত ১০০ টিউন করার যোগ্যতা অর্জন করব।”
আল্লাহ আপনাকে অনেক অনেক বড় করুন। এবং দোয়া করি যাতে আপনি অবশ্যই বি,এস,সি করতে পারেন। (আমিন)

    ধন্যবাদ আর আমিও দোয়া করি যাতে আপনি ১০০ টিউন করার যোগ্যতা অর্জন করেন ।

login korechi apnar Tune e comment korar jonno.
100 number tune e apnake sagotom.
accha apni to https://www.techtunes.co/review/tune-id/42362/comment-page-1/#comment-111935 er jobab dilen na !

( Avro khuje pacchi na. ami amar bondhur PC te)

১০০তম টিউনে আমার প্রাণঢালা অভিনন্দন গ্রহণ করুন 🙂 …..

অনেক অনেক অভিনন্দন ফাহিম তোমাকে… যাক শেষ পর্যন্ত তুমি থাম্বনেইল দেওয়া শিখে গিয়েছ ;-)। তোমার নিজের ব্লগের প্রতিও রইল শুভকামনা। আবারও অভিনন্দন।

    অনেক ধন্যবাদ মেহেদী ভাই । আমার টিউন এ আপনার মন্তব্য , এত খুছি রাখি কই । মন্তব্য করার জন্য আবার অনেক অনেক ধন্যবাদ ।

যখন শুধু টিউন পড়তাম আর মন্তব্য করতাম তখন থেকেই আমার প্রিয় টিউনারদের একজন ছিলো এই “ফাহিম রেজা বাঁধন”এবং এখনও আছে।অভিনন্দন শততম টিউনে।অভিনন্দন শততম টিউনের খেতাব ভুক্ত টিউনারকে।

ফাহিম ভাই আপনার ১০০ তম টিউনে অনেক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা রইল।
দোয়া করি খুব শীঘ্রই যেন ২০০ তম টিউন উপহার দিতে পারেন।

ক্লাসে ছিলাম …. না হয় অনেক আগেই অভিন্দন জানাতাম … দেরী করার জন্যে দুঃখিত …. তবে তোমার প্রতি অনেক অনেক শুভ কামনা রইল …. আশা করি এভাবেই এগিয়ে যাবে জীবনে যেমন এগিয়েছ টেকটিউন্সে ….

হাজারো ফুলের শুভেচ্ছা রইলো ।আপনার সামনের চলার পথ সুগম হোক ,এই কামনা করি।

শত টিউনে স্বাগতম। আরও টিউনের অপেক্ষায় আছি। আরো সুন্দর টিনের অপেক্ষায় আছি। ভালো থাকবেন । ধন্যবাদ ফাহিম রেজা ভাই।

khub sundor hoieche.vaia tumi onek sundor tune korte paro