গুগল মালিকানাধীন এডসেন্সের বিরুদ্ধে আবার পাবলিশার দের টাকা চুরি করার অভিযোগ

টিউন বিভাগ গুগল
প্রকাশিত

যারা নেটে ঘাটাঘাটি করেন, তারা সবাই ই গুগল এডসেন্সের আওতাভুক্ত। সবাই কেন বললাম ?

বিভিন্ন ওয়েবসাইটে যত বিজ্ঞাপন দেখেন, এই বিজ্ঞাপন সেক্টর এর বেশীর ভাগ ই গুগল কন্ট্রল করে, অর্থাৎ ব্যাবসা করে। আর এই খাত থেকেই গুগলের মুল আয় টা হয়।

যাদের ওয়েবসাইট আছে তারা তো চেনেন ই গুগল এডসেন্স কি জিনিষ, নিজের সাইটে এই এডসেন্স পাওয়া এক কথায় সোনার হরিন। খোদ টেকটিউন্সে অন্তত এ নিয়ে শ খানেক পোস্ট আছে, আমিও মনে হয় কি কি লিখছিলাম।

এবার সেই এডসেন্স এর বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ ?

কদিন আগে হুট করেই লাখ খানেক এডসেন্স একাউন্ট সাসপেন্ড করা হয়, আর মজার বিষয় প্রায় সবাইকেই গুগল কারন একটাই দেখাইছে।ওদের টার্মস ভাঙ্গা। বোকা গরীব মানুষ আমরা চুপ করে মেনে নিছি। এতে কারো কারো এডসেন্স এ থাকা বহু ডলার মারা গেছে। আমার পরিচিত এক বড় ভাইয়ের একাউন্টে দেখছিলাম ৮০০ ডলার এর কাছাকাছি, (এক মাসের আয়, কিরকম সাইট চালান চিন্তাই করেন একবার )

কি হলো ?

রাতে একাউন্ট চেক করলেন মাসের প্রায় শেষের দিকে, আহ সামনের মাসে এটা ওটা করবো এই পেমেন্ট দিয়ে, সকাল বেলা ঊঠে দেখেন টার্মস এন্ড কন্ডিশন ভাঙ্গার জন্য নাকি তার একাউন্ট ব্যান করে দেয়া হয়েছে। ভাইয়ের কটা কি ওয়ার্ড বেসড ব্লগ সাইট আছে, নিজে লেখেন সারাদিন বসে বসে । উনি আর আমি অনেক খুজেও ওদের টার্মস ভাংসে এমন কিছু দেখি নাই।(৫ বছর নেটে কাজ করি আমি) আমি ই তারে সান্তনার বুঝ দিলাম, হোক ভাই, কিছু না করলে এত বড় কম্পানী এমন করতো না। উনি আমাকে প্রশ্ন করেন “ভাইরে দেড় বছর ধরে চলতেছে, একরাতে কি হয়ে গেলো। তা আর চালাতে দিবি না ভালো কথা, আমার টাকা গুলা দিবি, সেগুলো মেরে খাইলি কেন ?

যাক, আমরা চিল্লালেও কেউ শুনে না, এবার খবর চোখে পড়লো প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট Webpronews.com এ। বেশ পপুলার, এলেক্সা গ্লোবাল র‌্যাঙ্ক ৮৯৯৪ । এরা চাপা পিটিয়ে সাইট চালাবার মত কম্পানী না আমাদের দেশের অনলাইন নিউজ পেপার গুলোর মত।

ঘটনা এমন

একজন বহুবছর ধরে এডসেন্স ব্যাবহারকারীর একাউন্ট উপরে বলা বড় ভাইয়ের মত কোন কারন ছারাই ব্যান করা হইলো। ঘারতেরা লোক, গুগল কে উনি কারন দর্শাইতে বললেন, কোন রিপ্লাই না পেয়ে মামলা করে বসেছেন তিনি গুগলের বিরুদ্ধে।

যদিও গুগল বলে “we always send a note to the publisher explaining which policy was in question and, in many cases, give them a chance to make changes to their pages to keep the account in good standing. Publishers are also given an opportunity to appeal policy decisions “

শর্টকাট মানে হলো “আমরা ব্যাবহারকারী দের একটা নোট লিখে পাঠাই তাকে সতর্ক করে, নিজের একাউন্ট কে সেফ রাখার জন্য “ । যদিও আলোচিত কেউ ই এমন কিছু পান নাই।

http://www.mestextos.com/ নামের আরেক সাইট এর এডমিন জানান , তিনি কদিন আগেই কথা বলেছেন গুগলের সেলস স্টাফের সাথে। সে তাকে জানায় সব ঠিক ঠাক আছে, এন্ড একদিন হুট করেই তার এডসেন্স একাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে তার ক্ষতির পরিমান বেশী নাহ, মাত্র ৪৬০০০ ডলার মাত্র।

পেস্টাবিন নামে এক কন্টেন্ট শেয়ারিং ওয়েবসাইটে গুগলের প্রাক্তন পরিচয় ধারী স্টাফ জানান “ এডসেন্স স্টাফ রা অনেক আগে থেকেই পাবলিশার দের টাকা চুরির সাথে জড়িত, আর এখন ব্যাপার টা অনেক বেড়ে গেছে। হুট হাট কোন পাবলিশার এর একাউন্ট ব্যান করা তাদের ই কারসাজি বা সরাসরি ম্যানেজমেন্টের নির্দেশে এটি করা হয়।  যদিও বাইরের কেউ এ খবর জানে না, জানলে এফ বি আই এর মত সংস্থা আরো আগেই কোন ব্যাবস্থা নিত কেননা এটি আমেরিকার আইন সরাসরি ভাঙ্গা।

ইংরেজী আসল খবরের লিঙ্কঃ এখানে।মনে সন্দেহ থাকলে দেখে আসবেন।

বেশী কিছু বলবো না, ভুক্তভোগী রা নিজেদের অভিজ্ঞতা জানান, আমার এ নিয়ে একটা ডকুমেন্টারী করার ইচ্ছা আছে।আমাদের দেশের বেশ প্রচলিত এড কম্পানী নিয়েও আমার কাছে কিছু তথ্য আছে, চাইলে লিখতে পারি, আসল রুপ বের হয়ে যাবে এগুলোর।

আমি ফেইসবুকটুইটারলিঙ্কেডইন

সৌজন্যে : ফাজলামী ডট কম

Level New

আমি শিমুল শাহরিয়ার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 90 টি টিউন ও 497 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমার সম্পর্কে আমি নিজেও খুব বেশী একটা জানি না । তাই কিছু বলার/লিখার সাহস পেলাম না , আমার সাইট http://www.fajlami.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ব্রো, যতদিন গুগল ফেবুর মতো সাইট বাংলাদেশে এক্সেস পাবে, ততদিন বাইদু আলীবাবার মতো সাইট বাংলাদেশে হবে না।

এভাবেই কয়েকদিন একটি সাইট চালাবেন, তারপর নিজেই কখন অফ করবেন জানতেও পারবেন না।

২-৩ বছর আগেও প্রথম আলোতে কি পরিমাণ এড থাকতো। আজ কিছু পেইড এড ব্যবহার করেই চলতে হয় তাদের। বাকী সাইটগুলোর কথা নাই বললাম।

আমি মনে করি চীনের নীতিই আমাদেরকেও অনুসরন করা উচিত। দেশীয় সাইটগুলো একটু হালে পানি পেত।

সরকার গণমাধ্যম নীতিমালা তৈরি করেছে। কার্যকর খুবই তাড়াতাড়ী করার কথা। এইসব গুগল ফেবুর মতো সাইটগুলো থাকলে এই নীতিমালা দিয়ে কোন কাজ হবে না। এই জায়ান্টদেরকেও নীতিমালার আওতায় এক্সেস দিতে হবে অথবা ব্যান করতে হবে। দেশের পুরো অনলাইন তথা বিজ্ঞাপন খাতটি দুই জায়ান্ট ৯৮% দখল করে রেখেছে।

সব দেখি চোর।।।ভাইয়া বাংলাদেশি নিয়া লিখেন তো।