ওয়েবসাইট সাইন্স [পর্ব-১৪] ::ওয়েব হোস্টিং, কি, কেন, কোনটা। ( মেগাপোস্ট )

ওয়েবসাইট সাইন্স

শিমুল ভাই অলস হয়ে গেছে, অনেক দিন তারে নিয়মিত পাই না। অভিযোগের ভিত্তিতে লিখতে বসলাম একটা জরুরী বিষয় নিয়া।

আমরা জানি, একটা ওয়েবসাইটের সবথেকে গুরত্ত্বপুর্ন বিষয় ওয়েব হোস্টিং, এর বিভিন্ন দিক নিয়ে আজ আমার পোস্ট।

ওয়েব হোস্টিং হচ্ছে অনলাইনে একটা হার্ডডিস্ক বা মেমরী কার্ড বলতে পারেন। এতে আপনার বা একটা ওয়েবসাইটের যাবতীয় ডাটা সংরক্ষন করা যায়।

এর বিভিন্ন সাধারন দিক

ডিস্কস্পেস ( Diskspace ): ঠিক কতটুকু যায়গা আপনি পাবেন। এটা ২০০/৫০০ মেগাবাইট  থেকে শুরু করে ৫০/১০০ গিগাবাইট পর্যন্ত হতে পারে। এই মেমরীতে আপনার সাইটের ফাইল, কোড,ডাটাবেজ ইত্যাদি রাখা হয়। কতটুকু পাবেন সেটা নির্ভর করে আপনি কতটুকু কিনবেন তার উপরে। আর কতটুকু কিনবেন সেটা নির্ভর করে আপনার কতটুকু যায়গা লাগবে তার উপরে। এ নিয়ে পরে আরো লিখতেছি।

ব্যাণ্ডওয়াডথ (Bandwidth): এটারে কেমনে বুঝাই যে। ধরেন আপনার একটা পেইজের সাইজ ১ মেগাবাইট, সেটা ভিজিট করতে ১ মেগাবাইট লাগলো, এভাবে পেইজ টা ১০ বার ভিজিট করাতে আপনার গেলো ১০ মেগাবাইট। এটাই ব্যাণ্ড ওয়াডথ। এর সাথে ডিস্কস্পেস এর কোন সম্পর্ক নাই। আপনার সাইটের ভিজিটর যত বাড়বে, এটাও তত বেশী লাগবে আপনার।

সার্ভার র‌্যামঃ এটা সম্পর্কে কোন হোস্টিং কম্পানী ই বলে না, বাট খুবি গুরুত্ত পুর্ন বিষয়, আর আমার দেখা বেশিরভাগ সাইট ডাউন খায় এই র‌্যাম এর কারনে। কেমনে বুঝাই…… যারা কম্পিউটার ব্যাবহার করেন, তারা তো জানেন ই র‌্যাম কি। আমাদের এই সকল ওয়েব হোস্টিং বা যাই বলেন সবকিছুই কিন্তু একটা পিসিতে থাকে, সেই পিসির হার্ডডিস্ক এই আমাদের ফাইল গুলো থাকে। সেটার ও র‌্যাম আছে, এখন একটা কম্পিউটারে অনেক গুলো সফট একসাথে চালালে অনেক চাপ পরে না ??? সেইরকম অনলাইন সার্ভার পিসিতেও র‌্যাম এ চাপ পরে কোন সাইট ভিজিট করার সময়। দেখা যাচ্ছে কোন সাইটে অনেক ডাটা প্রসেস হয়, সেক্ষেত্রে  র‌্যাম এও অনেক চাপ পরে , র‌্যাম লোড নিতে না পারলেই সার্ভার ডাঊন 😛 আই মিন সাইট অফ।

তো এখন প্রশ্ন, ভাই আমি কতটুকু যায়গা বা হোস্টিং কিনবো।

একটা ব্যাক্তিগত সাইটের জন্য ৫০০ মেগাবাইট আদর্শ যায়গা, যদি আপনি আপনার সাইটে গান,ভিডিও না রাখতে চান আরকি। ব্যাক্তিগত বলতে নিজের ব্লগ ও বুঝাইছি।  আর এই ধরনের সাইট গুলোতে সাধারনত খুব বেশি ভিজিটর হয় না, ৫-১০ গিগাবাইট ব্যান্ডওয়াডথ হলেই সুন্দর কাজ চলে যায়।

যখন আপনি কোন ডাউনলোড সাইট বানাতে যাবেন, তখন অনেক বেশী যায়গা লাগবে। একটা গান যদি ৫ মেগাবাইট সাইজের হয়, সেক্ষেত্রে ১ গিগাতে রাখতে পারবেন কয়টা হিসেব করেন। এগুলো সাইটের জন্য ৫-১০ গিগাবাইট যায়গা হলে নিশ্চিন্তে সাইট চালাইতে পারবেন, সমস্যা নাই।

এখন, যদি টেকটিউন্স টাইপ ব্লগ বানাতে চান, তাহলে লক্ষ্য করেন, একে ওয়ার্ডপ্রেস। ওয়ার্ডপ্রেস কাজ কিভাবে করে জানেন ? সব তথ্য থাকে মাই এস কিউ এল ডাটাবেজ এ। আপনি যখন কোন পেইজ দেখতে চান, তখন সেই ডাটাবেজ থেকে ফাইল টা প্রসেস করে তারপর আপনাকে দেখানো হয়। এতে র‌্যম এ বেশ চাপ পড়ে। তার উপর পেইজ গুলোর সাইজ অনেক বড়, ব্যাণ্ডওয়াডথ ও লাগে অনেক বেশি (ক্যাশ প্লাগিন এর হিসেব পরে) তাই সাধারনত এক্সপার্ট রা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট চালাতে স্পেসাল হোস্টিং ব্যাবহার করতে বলেন। গুগলে WordPress Hosting লিখে সার্চ দেন, তাহলেই বুঝবেন, এগুলোর দাম খানিক টা বেশী হয়।

একটা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট ৫০০ মেগাবাইট হোস্টিং নিয়েই বানানো যায় ! না আপনি ভুল শুনেন নাই, কিন্তু আপনার ব্যাণ্ডোয়াডথ অনেক বেশী লাগবে (ভিজিটরের উপর নির্ভর করে) , আর সার্ভার র‌্যাম টা ভালো হতে হবে। না হলে আপনার সাইটের কারনে কদিন পর পর সার্ভার ডাউন খাবে আরকি। একটা সাধারন হিসেবে, নুন্যতম ডিজাইনড একটা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট দিনে গড়ে ৫০ হাজার পেইজভিউ পেলে এক দিনেই ২ গিগাবাইট ব্যাণ্ডয়াডথ খেয়ে ফেলে। ( মারছে রে ) একটা ৫১২ মেগাবাইট র‌্যাম রে কাইত করে ফেলতে ইনাফ ( অভিজ্ঞতা থেকে লিখতেছি )

আচ্ছা, এবার দাম নিয়ে বলা যাক।

আমি বেশ বাজে ভাবেই বলতে বাধ্য হচ্ছি, বাংলাদেশেও এখন ছাতার মত গজিয়ে গেছে হাজার হাজার হোস্টিং সাইট। এদের কারো কোন নীতিমালা নাই, যার যা ইচ্ছে দাম নিচ্ছে।

গত কাল রাতে হাসতে হাসতে আমি আর আমার এক বন্ধুর চোখ দিয়ে পানি বের হয়ে গেছে। দেখলাম এক কম্পানী ৭৫ টাকায় এক মাসের হোস্টিং অফার করতেছে। এরা কেমনে এত কমে দেয় খুজতে গিয়ে দেখা গেলো আসল তথ্য। কোন লোকাল কম্পানী নাকি ২৫০ টাকায় রিসেলার বিক্রি করে মাসে, ১০ গিগাবাইট, সেটারে কিনে উনারা ৭৫০ টাকায় বিক্রি করেন আরকি। (সার্ভার কোয়ালিটি চিন্তা করেন একবার আপনি নিজেই ) হোস্টিং এর ক্ষেত্রে একটা কথা খাটবেই, জিনিষ যেটা ভালো দাম সেটার একটু বেশী ই।

জী, একটা ভালো হোস্টিং এর দাম খানিক টা বেশী ই। ১ গিগাবাইট হোস্টিং ভালো মানের কিনতে গেলে আপনার খরচ পড়বে ৮০০- ১৪০০ টাকা। আপনি খরচ বাচাতে যেয়ে ৩৫০ টাকায় এক গিগাবাইট কিনবেন, আর পরে মাসে ১০ দিন সাইট ডাউন খাবে দিনে ২ বার করে, একজন ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে আমি সেটা কখনোই চাইবো না। সো সাবধান, কমদামী থেকে দূরে থাকেন, সাইট আপনার, মান সম্মান, ইনকাম সবি আপনার।

আচ্ছা, ফ্রি হোস্টিং এর কথা বলাই হয়নি। এরা কেন আপনাকে নিজেরা টাকা খরচ করে কোন কিছু ফ্রি দেবে ??? একবার মন দিয়ে ভাবুন। এগুলোর অবস্থা খুবি খারাপ হয়, আর সাথে তাদের ফোর্সড বিজ্ঞাপন , ব্যানার ইত্যাদি তো আছেই। তার উপর সাইট লোড হতে লাগে এক ঘন্টা। তো একটা ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানেন, এমন কেউ বারবার বলবেন “ ফ্রি কে না বলুন “।

"" Free Web hosting server dies anytime. limited time. low bandwidth. Slow loading. """"

আর কি লিখবো ??? প্রশ্ন থাকলে করুন, আমি না পারলেও এখানে হোস্টিং সম্পর্কে খুব ভালো জানেন, এমন অনেকে আছেন, তারা উত্তর দেবেন। একটা ছোট্ট ঘটনার পর আজকের পোস্ট লিখতে বসা, গত পরশু আমার মিউজিক সার্চ ইঞ্জিন (Topfreesongs.com ) টা হুট করে ডাউন। ঘটনা কি ? পরে হোস্টিং কম্পানী এ্যাডমিন বলতে না চাইলেও জানতে পারলাম এটার লোড অনেক বেশী, সে সার্ভার লোড নিতে পারতেছে না। পরে বাধ্য হয়ে নিজের সার্ভারে আনলাম ( নিজের টা একেবারে নতুন, তাই এতদিন আনা হয়নি সাইটগুলো ) । আর বুঝলাম, হুম এটার লোড খুব বেশী, পরে বাধ্য হয়ে আরো ১ গিগাবাইট র‌্যাম লাগাইলাম সার্ভারে, এখন দিব্যি চলতেছে। সো আমি আবার বলবো , জেনেশুনে কেনেন, নাইলে দুদিন পরে আমার মত ধরা খেয়ে ইজ্জত নিয়ে টানাটানি পরে যাবে। একটা সাইট কদিন অফ থাকা মানে সার্চ রেজাল্ট থেকে অনেক পিছিয়ে পড়া, এটা মনে রাখবেন।

অনেক জেনেছি টিউনার সুমির দাদার থেকে, টিউন টা তাকে উতসর্গ করা হইলো।

ভালো থাকবেন, নিজের আগে অন্যকে ভালো রাখবেন। পোস্ট টা এর আগে ফাজলামি ডট কমে প্রকাশিত। আমার টেকটিউন্স আপডেট পেতে পারেন আমার ফেসবুকে। ধন্যবাদ

Level New

আমি শিমুল শাহরিয়ার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 90 টি টিউন ও 497 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমার সম্পর্কে আমি নিজেও খুব বেশী একটা জানি না । তাই কিছু বলার/লিখার সাহস পেলাম না , আমার সাইট http://www.fajlami.com


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

অসংখ্য ধন্যবাদ।

ভাল লিখছেন,
তবে ব্যান্ডউইথ নিয়ে আরেকটু বলেন প্লিজ।

শিমুল ভাই দারুন লিখেছেন @ আসলে আপনাদের টিউন ছাড়া TT কেমন জানি লাগে @ আশাকরি নিয়মিত টিউন করে যাবেন ।

ভালো লিখেছেন ভাই, কিন্তু আপনার নিজের ওয়েবসাইটটা এতো slow কেনো? আপনার হোস্ট নিজের সার্ভারটা ভালো না।

অনেক সুন্দর টিউন ভাই।
গরীব মানুষ, তাই আমিই সেই ৭৫ টাকার গর্বিত হোস্টিং ইউজার 😛
যাই হোক। এখন পর্যন্ত সমস্যা পাইনাই আর কি। আপনি কইলেন সার্ভার রেস্পন্স টাইম বেশি। কম টাকায় আর কত চাবো বলেন? আর আমার টাকা কম বইলাই তো আমার সাধ্যের প্যাকেজ নিছি।
ভাই আমিতো হোস্টিঙ্গে মূর্খ তবু পার্টনার নিয়া হোস্টিং সাইট খুলতেছি তাই সাজেশন দিবেন।
আর ছাতার মত গইড়া উঠলেও একটা জিনিস কিন্তু ভালো হবে সেটা হল বিজনেস কইরা চররম মজা হবে।
একেক জনের বিজনেস পলিসি একেক রকম আর কি! আমিও এমন মাসিক প্যাকেজ আমার কোম্পানিতে রাখমু।
ভাই আপনার পরামর্শ চাই। 🙂

Level 0

এই টিউন টা বোধ হয় আমার কথা চিন্তা করেই লেখা 😛

গত কয়েকদিন ধরে ধরতে গেলে নেট থেকে বিচ্ছিন্ন। আবার গতকাল বাসায় ফিরেছি। এই টিউনটা দেখছিলাম মোবাইল এ। আর মোবাইল দিয়া সাধারনত কমেন্ট করি না। আমার দুইটা বিটিসিএল ব্রডব্যান্ড কানেকশন হতে এবং গ্রামীনফোন কানেকশন হতে টেকটিউনস ওপেন হচ্ছে না। যাই হোক টিউনটা পরলাম। নিচের দিকে এসে দেখি আমার নাম। একেবারে অবাক হয়েছি। যাই হোক ধন্যবাদ, শিমুল কে। টিউনটা নতুনদের কাজে লাগবে। অবশেষে একটা ছোট প্রশ্ন, হোস্টিং ব্যাবসা কেমন লাগছে???